ঢাকা, বুধবার, ২৭ মে ২০২০, ১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৩ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ভাড়াটিয়াদের ভাড়ার জন্য মারধর

ঘটনাস্থল পুরান ঢাকার চকবাজার গ্রেফতার ২

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০২০, ১২:০৫ এএম



বিশেষ সংবাদদাতা : পুরান ঢাকার চকবাজার এলাকায় বাড়ি ভাড়া না পেয়ে ভাড়াটিয়াকে পিটিয়ে ঘর থেকে বের করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আবদুল হান্নান ও তার দুই ছেলে আল আমিন ও সাইদুল ইসলাম নামে তিন ভাড়াটিয়া। চকবাজার থানা পুলিশ এঘটনায় বাড়ির মালিক ও তার ভাতিজাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে পিটিয়ে বের করে দেয়া ভাড়াটিয়াদেরকে বাড়ি থাকার ব্যবস্থা করেছে। গ্রেফতাররা হলো-বাসার মালিক রাজু আহমেদ ও তার ভাতিজা সোহান। এ ঘটনায় চকবাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

হামলার শিকার ভাড়াটিয়া আবদুল হান্নান বলেন, আমি ভ্যানে করে পিঠা বিক্রি করি। এ দিয়েই সংসার ও বাড়ি ভাড়া দেই। প্রায় পাঁচ বছর ধরে পুরান ঢাকার হোসাইনী দালানের ১৬ নাম্বার বাড়ির নিচ তলায় ১২ হাজার টাকা ভাড়ায় থাকি। করোনার কারণে গত তিনমাস ব্যবসার অবস্থা খুবই খারাপ তাই ভাড়া দিতে পারিনি। গত মঙ্গলবার বিকাল তিনটার দিকে বাড়িওয়ালা রাজু আমাকে বাসার নিচে পেয়ে ভাড়া চাইলেন। তখন আমি বললাম, আর কিছু দিন পর দিবো।

এ কথা বলায় তিনি আমার উপরে ক্ষিপ্ত হন। এডভান্সের (অগ্রিম) ৪০ হাজার টাকা থেকে কেটে নেয়ার কথা বললে আমাকে মারধর করতে থাকেন। পরে আমার ছেলেরা দৌড়ে আসলে আমার দুই ছেলেকেও তারা পেটাতে থাকেন। এরপর আশপাশের লোকজন পুলিশকে খবর দিলে পুলিশ এসে আমাদেরকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলে ভর্তি করে। তিনি বলেন, এ ঘটনায় আমি এবং আমার ছেলে সাইদুলের শরীর বিভিন্ন জায়গায় জখম পেলেও আমার ছেলে আল আমিনের মাথায় তিন সেলাই দিয়েছে ডাক্তাররা।
ডিএমপির চকবাজার জোনের সহকারি কমিশনার (এসি) মো. ইলিয়াছ হোসেন বলেন, ওই বাসার মালিক রাজু আহমেদ ভাড়ার জন্য মঙ্গলবার আরও ভাড়াটিয়ার ঘরে তালা দিয়েছিলেন। সবাই চাবি ফেরত পেলেও হান্নানের পরিবারকে চাবি দেয়া হয়নি। ভাড়াটিয়াদের মারধর করে জখমের অপরাধে বাড়ির মালিক রাজু আহমেদ ও তার ভাতিজা সোহানকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন