ঢাকা বুধবার, ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৫ আশ্বিন ১৪২৭, ১২ সফর ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

মেসিকে ঘিরেই ছক বার্সায়, বায়ার্নেও

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৪ আগস্ট, ২০২০, ১২:০২ এএম

চিরপ্রতিদ্ব›দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের কাছে খুইয়েছে লা লিগার শিরোপা। দল-বদলের গুঞ্জনে জেরবার লিওনেল মেসি, যার জেরে হারানোর অবস্থাই তৈরী হয়েছিল কোচ কিকে সেতিয়েনের। সেই ধাক্কা সামলে ঘুরে দাঁড়িয়েছে বার্সেলোনা, দুর্দান্ত এক জয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে স্প্যানিশ দলটি। সেরা ফর্মে ফিরেছেন অধিনায়ক মেসিও। ঘরের মাঠ ক্যাম্প ন্যুতে নাপোলির বিপক্ষে ঐ ম্যাচে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের এক চোট কিছুটা কপালে ভাজ ফেলেছিল কাতালুনিয়া সমর্থকদের। তবে সেই শঙ্কা কাটিয়ে পুরো ফিট মেসিই যে লিসবেন এসেছেন বার্সার কান্ডারী হয়ে! উপায়ও যে নেই। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের সেমিফাইনালে ওঠার লড়াইয়ে আজ তাদের প্রতিপক্ষ যে দুর্দান্ত ফর্মে থাকা বায়ার্ন মিউনিখ। পর্তুগালের রাজধানী লিসবনে ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় রাত ১টায়।
চলতি মৌসুমে যেন রীতিমতো উড়ছে জার্মান চ্যাম্পিয়নরা। গ্রুপ পর্বে সর্বাধিক ২৩টি গোল দিয়েছে তারা। দ্বিতীয় রাউন্ডে এসেও একই ছন্দে খেলছে দলটি। ইংলিশ জায়ান্ট চেলসিকে ৭-১ ব্যবধানে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে নাম লিখিয়েছে তারা। শুধু ইউরোপ সেরা মঞ্চেই কেন, এই ফর্ম টেনে নিয়েছেন সবধরণের ফুটবলেই। একক আধিপত্য বিস্তার করে জিতেছেন বুন্দেসলিগর শিরোপা। জিতেছেন ডিএফভি পোকাল কপও। ঘরোয়া ডাবল জিতে এবার পাখির চোখ করেছেন ট্রেবলে। যার প্রায় সবটুকুই করেছেন রবের্ত লেভান্দোভস্কি। দারুণ ছন্দে আছে পোলিশ ফরোয়ার্ডও। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের এবারের আসরে এখন পর্যন্ত সর্বোচ্চ ১৩টি গোল করেছেন। আর ৪টি গোল করতে পারলে ভেঙে ফেলবেন ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর রেকর্ডও।
লড়াইটা যে হবে সেয়ানে সেয়ানে সেটি আর বলে দেবার অপক্ষো রখেনা। এর আগেও অনেক রেমাঞ্চ উপহর দিয়েছে দল দু’টি। এবার অবশ্য কিছুটা ভিন্নতার মুখোমুখি হতে হবে সমান পাঁচবার করে ইউরোপ সেরার ট্রফি জেতা জার্মান চ্যাম্পিয়ন ও কাতালান জায়ান্টদের। করোনাভাইরাসের থাবায় দুই লেগের নিয়ম বদলে প্রতিযোগিতাটির ইতিহাসে এই প্রথম এক ম্যাচে নিষ্পত্তি হবে সেমি-ফাইনালে ওঠার লড়াই। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউট পর্বে এর আগে ছয় ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে দুই দল। বায়ার্নের জয় তিনটি, বার্সেলোনার দুইটি। অন্য ম্যাচটি ড্র। তবে দুই লেগ মিলিয়ে নকআউট পর্ব পেরুনোর হিসাবে বার্সেলোনা দুইবার এবং বায়ার্ন একবার সফল।
এবারও জয়ের ব্যাপারে বেশ আত্মবিশ্বাসী বার্সার অন্যতম সেরা খেলোয়াড় ফ্রাঙ্কি ডি ইয়ং। বায়ার্নের বিপক্ষে মাঠে নামার আগে জয়ের প্রত্যয় প্রকাশ করে এমনটাই বলেন এ ডাচ তারকা, ‘আমরা অন্যতম ফেভারিট, তবে বার্সা সবসময়ই থাকে। অনেকবারই আমরা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জয়ের খুব কাছে ছিলাম। দলটি বেশ আত্মবিশ্বাস নিয়েই লিসবনে যাচ্ছে। দারুণ কিছু খেলোয়াড় নিয়ে আমরা পৃথিবীর সেরা একটি দল। আমাদের ইতিবাচক শক্তি রয়েছে এবং দলের সবাই ভালো অনুভব করছে।’
সা¤প্রতিক সময়ের পারফরম্যান্স অনুযায়ী এ ম্যাচে বার্সার চেয়ে এগিয়ে বায়ার্নই। বিশেষকরে লকডাউনের পর বার্সেলোনার আত্মবিশ্বাসে যেন চিড় ধরেছে। তবে এ নিয়ে চিন্তিত নন ডি ইয়ং। শুক্রবার মাঠেই প্রমাণ করতে চান নিজেদের, ‘কারা ফেভারিট, এ নিয়ে আমি চিন্তিত নই। বায়ার্নের সত্যিই দারুণ একটি দল রয়েছে এবং তারা দারুণ ছন্দেও আছে। তবে আমরা দেখতে চাই কি ঘটে। শুক্রবারের (আজ) ম্যাচ শেষেই জানা যাবে কারা সেরা।’ আর দলের মেসির উপস্থিতিই তাদের এগিয়ে রাখবে বলে মনে করেন এ মিডফিল্ডার, ‘মেসি অন্য সবার থেকে আলাদা। সে বিশ্বের অন্য খেলোয়াড়দের তুলনায় অনেক এগিয়ে আছে। দলে মেসি থাকা মানে অনেক এগিয়ে থাকা।’
‘মেসিকে আটকানোর মতো কোনো কলাকৌশলই আসলে নেই। শুধু স্বপ্নেই মেসিকে আটকাতে পারতেন। বাস্তবে এটি কোনোভাবেই সম্ভব নয়।’ - এইতো কদিন আগেই শেষ ষোলোর ম্যাচে নামার আগে এমনটা বলেছিলেন নাপোলি কোচ জেনারো গাত্তুসো। আর তার কথার সত্যতা প্রমাণ করে ইনজুরিতে পড়ার আগে অসাধারণ খেলেছেন বার্সা অধিনায়ক লিওনেল মেসি।
এবার কোয়ার্টার ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখকে লড়তে হবে মেসির বিরুদ্ধে। খুঁজতে হবে তাকে আটকানোর পথ। দুশ্চিন্তাটা স্বাভাবিক ভাবেই বেশি থাকে খেলোয়াড়দের। মাঠে কাজটা যে তাদেরই করতে হয়। তবে মেসিকে আটকানোর পথ খুঁজে পেয়েছেন বায়ার্ন মিউনিখের জার্মান মিডফিল্ডার লিও গোরেটজকা। একমাত্র দলের সবাই মিলে সম্মিলিতভাবে চেষ্টা করেই বার্সা অধিনায়ককে আটকানো সম্ভব বলে মনে করেন তিনি, ‘এটি একমাত্র উপায় (মেসিকে থামানো) সম্মিলিতভাবে। সবাই জানেন যে, সে কতটা প্রতিভাশালী। কঠোর পরিস্থিতিতেও অনেক সমাধান খুঁজে বের করতে সক্ষম তিনি। তাই আমাদের দল হিসাবে লড়াই করতে হবে। যদি কোনও একজন খেলোয়াড় ম্যাচটির মজা কেড়ে নিতে পারে... তবে আমি জানি না। আমাদের কেবল একটি দল হিসাবে লড়াই করতে হবে এবং আমাদের খেলাটি খেলতে হবে।’ -মেসিকে আটকানোর পথ জানিয়ে বলেন গোরেটজকা।
মেসির বিরুদ্ধে এবারই প্রথম মাঠে লড়বেন গোরেটজকা। তবে তার বিপক্ষে প্রথম হলেও সময়ের আরেক শীর্ষ তারকা ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর বিপক্ষে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে তার। এবার মেসির বিপক্ষে খেলতে পারায় তাই দারুণ উচ্ছ্বসিত গোরেটজকা, ‘বেশ কয়েকবার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো খেলার পর আমাদের দশকের আরেক শীর্ষস্থানীয় ফুটবলারের বিপক্ষে খেলতে পাড়ার সুযোগ পেয়ে দারুণ ভালো লাগছে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন