ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

জাতীয় সংবাদ

ইউএনও ওএসডি স্বামী স্বাস্থ্যসেবা বিভাগে

রবিউলের ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি আজ

স্টাফ রিপোর্টার ও দিনাজপুর অফিস | প্রকাশের সময় : ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

রাজধানীর ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরো সায়েন্স ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটের ইউএনও ওয়াহিদা খানমকে বিশেষ ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওএসডি) করা হয়েছে। একই সঙ্গে তার স্বামী রংপুরের পীরগঞ্জের ইউএনও মো. মেজবাউল হোসেনকে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য সেবা বিভাগে সিনিয়র সহকারী সচিব পদে বদলি করা হয়েছে। গত বুধবার এই বদলি করে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে আদেশ জারি করা হয়।

এর আগে গত ২ সেপ্টেম্বর দিনগত রাতে ইউএনও ওয়াহিদার সরকারি বাসভবনের ভেন্টিলেটর ভেঙে বাসায় ঢুকে ওয়াহিদা ও তার বাবা ওমর আলী শেখের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এতে ইউএনও ও তার বাবাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আহত করা হয়। পরে ইউএনওকে প্রথমে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে (রমেক) নিয়ে ভর্তি করা হয়।

এরপর তার শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য হেলিকপ্টারে করে তাকে ঢাকায় আনা হয়। পরে ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। অপরদিকে গত ১২ সেপ্টেম্বর তার বাবাকেও রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে ঢাকায় নিয়ে আসা হয়। পরে তাকেও ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্স হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে মেয়ে ও বাবার চিকিৎসা চলছে।
এদিকে, ওই ঘটনায় যুবলীগ নেতাসহ একাধিক ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হলেও সর্বশেষ পুলিশের তদন্ত বলছে, ইউএনও ওয়াহিদা খানমের অফিসের চতুর্থ শ্রেণির এক কর্মচারী এই হামলা চালিয়েছেন। ওই কর্মচারীর নাম মো. রবিউল ইসলাম। তাকেও পুলিশ গ্রেফতার করেছে। বর্তমানে দ্বিতীয় দফায় রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে তাকে।

দিনাজপুর থেকে মাহফুজুল হক আনার জানান, ওয়াহিদা খানম ও তার বাবা ওমর আলী শেখের ওপর হামলার ঘটনার অন্যতম আসামি মালি রবিউলের সম্পর্কতা সংশ্লিষ্ট দুজন সাক্ষীর জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ১৬৪ জবানবন্দি রেকর্ডের জন্য আজ আদালতে আনা হবে। এর আগে আরো তিন জন সাক্ষীর জবানবন্দি রেকর্ড করা হয়।
দিনাজপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন জানান, গতকাল ঘোড়াঘাট ওসমানপুর বাজারের মুদি দোকানদার সিরাজ (২৩) ও কবিরাজ মশিউর রহমানের ছেলে অলিউল্লাকে (১০) সাক্ষীর হিসাবে জবানবন্দি গ্রহণ নেওয়া হয়েছে। ঘটনার দিন সন্ধ্যা থেকে রাত ১১টা পর্যন্ত রবিউল মুদি দোকানদার সিরাজ ও পার্শ্ববর্তী কবিরাজের দোকানে অবস্থান করছিল বলে জানিয়েছে তারা। ১১টার দিকে দোকান বন্ধ করার সময় সিরাজ রবিউলকে পরিচয় এবং কি কারণে এত রাত পর্যন্ত বসে আছে জানতে চাইলে; সে জানিয়েছিল ইউএনও অফিসে কাজ আছে। এরপর সে চলে যায়। এর আগে সাক্ষী হিসাবে জবানবন্দি প্রদানকারী আইয়ুব দিনাজপুর শহরের ষষ্টিতলা এলাকায় সাইকেল মেকার। সেখানে রবিউল সাইকেল রেখেই ঘোড়াঘাট গিয়েছিলো।

অপরজন মুরাদ চৌকিদার সে রবিউলকে দেখেছিল এবং শহরের মুন্সিপাড়া নিবাসী খোকন জবানবন্দিতে বলেছে; আইপিএল জুয়ার জন্য রবিউল তাকে ৪৮ হাজার ৫০০ টাকা দিয়েছিল। এদিকে দ্বিতীয় দফায় তিন দিনের রিমান্ডে নেয়া রবিউলকে আজ রবিবার আদালতে নেয়া হবে। স্বেচ্ছায় ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে জবানবন্দি দিলে রেকর্ড করা হবে; নয়তো পরবর্তী তার বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
রাফিয়া মীম ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৩ এএম says : 0
এই দেশের 98% ইউএনও করাপটেড। মুক্তিযুদ্ধ কোটায় চাকরী পেয়ে উনিও সেইম সবার মতই ঘুষখোর হয়ে উঠেছিলেন।শুধু OSD না ওনার উপযুক্ত শাস্তি চাই।
Total Reply(0)
Apurba Sarker ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৪ এএম says : 0
দুই জনে মিলে এতদিন দুই উপজেলার তথা দেশের ভাবমূর্তি (বারোটা) উজ্জ্বল করিতেছিল।মাঝখানে হটাৎ যে টাকাগুলো কিভাবে উদ্ধার হয়ে সবকিছু ছন্দপতন হয়ে গেল।কি সুন্দর নুরানি চেহারা। শুনেছি তার বাবাও ধর্ম ভীরু। আসলে ঘুষ এমন উপাদেয় খাদ্য ধর্মভীরুতা তাহা রোধ করিতে পারিতেছেনা ইহা সর্বগ্রাসী রুপ নিয়েছে।
Total Reply(0)
Mannan Chowdhury Tipu ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৪ এএম says : 0
অপরাধীর শাস্তি হোক!! এবং টাকার বিষয়ে সব সত্য প্রকাশ করা হোক!!
Total Reply(0)
Ibrahim Mia ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৪ এএম says : 0
উনার বাসায় ৩৫ লক্ষ টাকার উৎস প্রকাশ করা দরকার।অন্যথায় মানুষ ভিন্ন মন্তব্য করবেন।
Total Reply(0)
Md. Al Amin ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৫ এএম says : 0
ক্ষমতার অপব্যবহারের শাস্তি পেয়েছেন। তবে এই জীবনে যা কামিয়েছেন বাকি জীবন বসে বসে খেলেও ৩ পুরুষ খেতে পারবে।
Total Reply(0)
Adil Ahmed ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৫ এএম says : 0
ওএসডি বুজিনা।তার বাসায় জে ৫০ লক্ষ টাকা পাওয়া গেল সেটার উৎস বের করা হোক। আর রবিউল জে ৫০ হাজার টাকা খাম থেকে নিল সেটা কিসের খাম।কেউ খাম এ টাকা কখন রাখে। কিসের খাম জান্তে চাই
Total Reply(0)
Salahuddin Salahuddin ২০ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ৩:২৬ এএম says : 0
ঘঠনার রহস্য কি বুঝা যাচ্ছে না... জেমস বন্ড ০০৭ কে লাগাতে হবে আসলেই কি হয়েছিল? ৩৫ লক্ষ কোত্থেকে আস ল? মালির এত সাহস কি করে হল?.. আল্লাহ জানে ভাই সত্য কি...- জয় বাংলা
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন