ঢাকা রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ০৩ মাঘ ১৪২৭, ০২ জামাদিউস সানী ১৪৪২ হিজরী

ইসলামী বিশ্ব

কাশ্মীরিদের অধিকার ফিরিয়ে দিয়ে মরতে চাই : ফারুক

বিজেপি যদি বাহাদুরি দেখাতে চায় সীমান্তে গিয়ে দেখাক, এখানে নয়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:০১ এএম

জম্মু-কাশ্মীরের সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ বলেছেন, জম্মু-কাশ্মীরের জনগণকে তাদের অধিকার ফেরত না দিয়ে আমি মরতে চাই না। অধিকার ফেরত দিয়েই আমি মরতে চাই। ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের জন্য বিজেপিকে তীব্র সমালোচনা করে ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ বলেছেন, ক্ষমতা কখনই স্থায়ী হয় না এবং একদিন সবাইকেই তাদের “চেয়ার” ছেড়ে যেতেও হবে। জম্মুতে শের-ই-কাশ্মীর ভবনে দলীয় কর্মীদের সামনে বক্তব্য রাখার সময় ওই মন্তব্য করেন তিনি। তিনি বলেন, ‘আমাদের লড়াই একটি আদর্শের বিরুদ্ধে। বিজেপি জনগণকে কেবল ভোটের জন্য ব্যবহার করেছে। ন্যাশনাল কনফারেন্স কখনও দেশবিরোধী হয়নি। বিজেপি বেইমানদের কেনার কাজ করেছে।’ ফারুক আব্দুল্লাহ বলেন, ‘আমাদের পাকিস্তানি বলা হচ্ছে, যদি আমরা চাইতাম তাহলে ১৯৪৭ সালেই পাকিস্তানের সাথে যেতে পারতাম। আমরা নিজেদেরকে বিজেপির ভারত নয়, মহাত্মা গান্ধীর ভারতের সাথে যুক্ত করেছি। তারা যদি আমাকে হত্যা করতে চায় হত্যা করতে পারে। কিন্তু বাঁচা ও মরার বিষয়টি উপরওয়ালার হাতে আছে। যদিও আমার বয়স ৮০ বছরের বেশি, তবুও আমি এখনও জওয়ান। আমি বিজেপিকে ভয় পাই না, বিজেপিকে যদি নিজের বাহাদুরি দেখাতে হয় তবে সীমান্তে গিয়ে দেখাক, এখানে নয়।’ ডা. ফারুক আব্দুল্লাহ বলেন, ‘বিজেপি জম্মু-কাশ্মীরের জনগণের সাথে জমি ও চাকরি সুরক্ষার মিথ্যা দাবি করেছে। কাশ্মীরি পÐিতদের ফিরিয়ে আনতে পারে নি। বিজেপি ভোটের জন্য কাশ্মীরি পÐিতদের ব্যবহার করেছে। ট্রাম্পের মতো বিজেপি সরকারও বিদায় নেবে।’ জম্মু-কাশ্মীরের সা¤প্রতিক পরিবর্তনের বিষয়ে বিজেপিকে টার্গেট করে সাবেক মুখ্যমন্ত্রী ও ন্যাশনাল কনফারেন্সের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ওমর আবদুল্লাহ বলেন, ‘বিজেপি দলের ৪৪ প্লাস মিশন প‚রণ না হওয়ায় কাশ্মীরের লোকদের কাছ থেকে প্রতিশোধ নিচ্ছে।’ ওমর আব্দুল্লাহ বলেন, সরকার গত এক বছরে কী করেছে? লেফটেন্যান্ট গভর্নরকে জিজ্ঞেস করতে চাই- রাজ্যে কয়টি কারখানা স্থাপন করা হয়েছে? ২০১৯ সালের ৫ আগস্ট ৩৭০ ধারা প্রত্যাহার সংক্রান্ত গৃহীত সিদ্ধান্তটি ছিল সর্বকালের সবচেয়ে খারাপ সিদ্ধান্ত। ‘বিজেপির ভুল নীতির জন্য জম্মু-কাশ্মীরে সন্ত্রাসবাদ বৃদ্ধি পেয়েছে। ন্যাশনাল কনফারেন্সের আমলে ২০১১-২০১৪ পর্যন্ত কিছু যুবক বন্দুক তুলে নিয়েছিল, কিন্তু এখন কিশোররাও বন্দুক হাতে তুলে নিয়েছে এবং ক্রমশ তা দ্রæতগতিতে বাড়ছে বলেও ন্যাশনাল কনফারেন্স নেতা ওমর আব্দুল্লাহ মন্তব্য করেন। নিউ ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস, পার্সটুডে।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (7)
Bazlur Rashid ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১:০৫ এএম says : 0
Kashmiris are giving there life due to power greediness of your family.
Total Reply(0)
শফিকুল ইসলাম অনিক ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১:০৭ এএম says : 0
জনগণের অধিকার ফিরাতে চাওয়া ভালো কিন্তু চাচায় মরতে চায় না
Total Reply(0)
Saiful Islam ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১:০৭ এএম says : 0
না ভারতের ! না পাকিস্তানের ! কাশ্মীর হোক নতুন মুসলিম দেশ!
Total Reply(0)
Md Shahin Hossain ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১:০৭ এএম says : 0
আল্লাহ আপনাকে নেক হায়াত দান করুক আপনার মনের আশা পূরণ করুক
Total Reply(0)
Sana Ullah ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১:০৮ এএম says : 0
কিভাবে অধিকার ফিরিয়ে দিবেন আমাদের বাংলাদেশীদের মত মুক্তিযুদ্ধ করতে হবে নিজেদের অধিকার নিজেরাই ছিনিয়ে আনতে হবে
Total Reply(0)
Monjur Rashed ৯ নভেম্বর, ২০২০, ১২:১৭ পিএম says : 0
It is too late. Indian conspiracy should have been realized earlier.
Total Reply(0)
Md Yousuf Ali Mia ৯ নভেম্বর, ২০২০, ৭:৪৮ পিএম says : 0
Don't believe this guy
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন