ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৮ মে ২০২১, ০৪ জৈষ্ঠ্য ১৪২৮, ০৫ শাওয়াল ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

পাকিস্তানের অবিশ্বাস্য হার

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১২:০১ এএম

বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে জিম্বাবুয়ের ছুঁড়ে দেওয়া লক্ষ্যটা ছিল হাতের নাগালে। কিন্তু সে লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে কঠিন সংগ্রাম করতে হয় পাকিস্তানকে। এক অধিনায়ক বাবর আজমই যা লড়াই করলেন। এরপর আর কোনো ব্যাটসম্যান দায়িত্ব নিতে ব্যর্থ হলে হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। সিরিজে সমতায় ফেরায় স্বাগতিকরা।

হারারেতে পাকিস্তানকে ১৯ রানে হারিয়েছে জিম্বাবুয়ে। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১১৮ রান করে তারা। জবাবে এক বল বাকী থাকতে ৯৯ রানে গুটিয়ে যায় সফরকারী পাকিস্তান। ষোলতম চেষ্টায় এই প্রথম পাকিস্তানকে টি-টোয়েন্টিতে হারাতে পারল জিম্বাবুয়ে।
লক্ষ্য তাড়ায় অবশ্য শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে পাকিস্তান। তবে এক প্রান্ত ধরে দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন অধিনায়ক বাবর। তবে রানের গতি সে অর্থে বাড়াতে পারেননি। পরে বাড়াতে গিয়ে ডিপ কভার পয়েন্টে মাধেভেরের হাতে ক্যাচ তুলে সাজঘর মুখী হন অধিনায়ক। ১৪ রানের ব্যবধানেই ৪টি উইকেট হারায় তারা। তাতেই স্বাগতিকদের দিকে হেলে পড়ে ম্যাচ। শেষ ওভার প্রয়োজন ছিল ২০ রানের। কিন্তু এক রানও তুলতে পারেনি পাকিস্তান। উল্টো শেষ ৩টি উইকেট হারায় তারা। ফলে জয়ের উচ্ছ্বাস নিয়েই মাঠ ছাড়ে জিম্বাবুয়ে।
পাকিস্তানের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪১ রানের ইনিংস খেলেন বাবর। ৪৫ বলে ৫টি চারের সাহায্যে এ রান করেন তিনি। এছাড়া দানিসের ব্যাট থেকে আসে ২২ রান। জিম্বাবুয়ের পক্ষে ১৮ রানের খরচায় ৩ পাকিস্তানী ব্যাটসম্যানকে তুলে দিনের সেরা বোলার লুক জংবি। এছাড়া ২১ রানের বিনিময়ে ম‚ল্যবান ২টি উইকেট পান রায়ান বার্ল।
এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তানী বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শুরু থেকেই নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে জিম্বাবুয়ে। ইনিংসে সর্বোচ্চ জুটিটি ২৮ রানের। দ্বিতীয় উইকেটে করেন টাডিওয়ানাশে মারুমানি ও টিনাশে কামুনহুকাম্বে। ফলে রানের গতিও ছিল মন্থর। পাওয়ার প্লেতে আসে মাত্র ২৫ রান। দলীয় পঞ্চাশ ছুঁতে লাগে ১০.৫ ওভার। এছাড়া এককভাবেও কেউ দায়িত্ব নিতে পারেননি। সর্বোচ্চ ৩৪ রানের ইনিংস খেলেন ওপেনার কামুনহুকাম্বে। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৮ রান করেন রেগিস চাকাভা। পাকিস্তানের পক্ষে ৪ ওভার বল করে ১৯ রানের খরচায় ২টি উইকেট পান মোহাম্মদ হাসনাইন। ২৯ রানের বিনিময়ে ২টি উইকেট পেয়েছেন দানিস আজিজও।
আগামীকাল শেষ টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি পরিণত ‘অলিখিত ফাইনালে’। সিরিজ জয়ের লক্ষ্যে মাঠে নামবে দুই দলই।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (10)
Habibul Bashar ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২৩ এএম says : 0
পাকিস্তান দল সাজাতে বারবার ভুল করে, কি কারণে হায়দার আলী, দানেশ রিয়াজ আর আসিফ আলী কে দলে রাখে, বারবার ব্যার্থ হওয়ার পরে ও তারাকে শুধু খেলায়।
Total Reply(0)
MD Safayet Hossain ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:১৮ এএম says : 0
কোনো দলকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই,,,জিম্বাবুয়ের খেলোয়াড়রা যদি আমাদের দেশের যারা Ist class ক্রিকেট খেলে তাদের মতো সুযোগ সুবিধা পেতো এতদিনে অনেক দূর এগিয়ে যেতো।
Total Reply(0)
Ahonaf Tahomid Riad ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২০ এএম says : 0
যেকোন দল যেকোন দলের সাথেই হারতে পারে, এটা স্বাভাবিক
Total Reply(0)
Molin Debnath ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২১ এএম says : 0
খুবই মজা পাইছি ম্যাচটা দেখে. . সত্যি কথা বলতে ছোট দলগুলা জিতলে আমার খুব ভালো লাগে........ . অভিনন্দন #জিম্বাবুয়ে
Total Reply(0)
Pulak Sarker ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২৩ এএম says : 0
অভিনন্দন জিম্বাবুয়েকে তোমরা আবার আগের ক্রিকেটে ফিরে আসো একে একে সবাইকে হারাও,, তাহলে ক্রিকেটের সেই আগের জওলস ফিরে আসবে
Total Reply(0)
আকাশ মাহমুদ রয়েল ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২১ এএম says : 0
আরে ভাই জিম্বাবুয়ে ক্রিকেট বিশ্বের বর্তমানে অন্যতম শক্তিশালী একটা টিম।তাদের কাছে হারছে বলে এত লজ্জার কী আছে.?কেনিয়ার সাথে খেললে কিন্তু হারতোনা।আইসিসি ভারতের চামচামি করে সব সময় এত কঠিন দলের সাথে পাকিস্তানের খেলা দেই।কেনিয়ার মতো মোধ্যম শক্তিশালী দলের সাথে খেলা দিলে কী এমন ক্ষতি হয় বুঝিনা।
Total Reply(0)
MD Biplob ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২১ এএম says : 0
জিম্বাবুয়ের বোলিং লাইন বেশ শক্তিশালী এটা আমরা আগের ম্যাচেও দেখেছি যদি ব্যাটিং আরেকটু শক্তিশালী হত তাহলে ওরা যেকোনো দলকে হারাতে সক্ষম
Total Reply(0)
অগ্নি বীণা ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২২ এএম says : 0
সবসময়ই জিতবে এমন কথা নেই। হারলেও পাকিস্তান, জিতলে ও পাকিস্তান। প্রাণের পাকিস্তান জিন্দাবাদ।
Total Reply(0)
Kazi Aanas ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১:২২ এএম says : 0
জিম্বাবুয়ের মাটিতে জিম্বাবুয়ে অনেক শক্তিশালী দল, তারা তাদের মাটিতে বড় বড় দলকে হারিয়েছে। তাদের মাটিতে বাংলাদেশ হোয়াইটওয়াশ হয়ে এসেছিল। আর পাকিস্তান বিশ্বের সবচেয়ে বড় আনপ্রেডিক্টেবল দল; যে কোন দলের সাথে জিততে পারে আবার যে কোন দলের সাথে হারতেও পারে।
Total Reply(0)
mdnurul hok ২৪ এপ্রিল, ২০২১, ১০:৪৪ এএম says : 0
হায়দার আসিফ আজিজ কে কেন খেলানো হয় বুঝতে পারি না
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন