ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৪ জুন ২০২১, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ১২ যিলক্বদ ১৪৪২ হিজরী

শান্তি ও সমৃদ্ধির পথ ইসলাম

সওয়াবের গোপন একাউন্ট

উবায়দুর রহমান খান নদভী | প্রকাশের সময় : ৬ মে, ২০২১, ১২:০১ এএম

হযরত আলী (রা.) ইন্তেকাল করার পর মদীনা ও কুফার অসংখ্য পরিবার এমন হয়ে গেল যে, তাদের অভাব ও দারিদ্র্য আর গোপন রইল না। তারা বাধ্য হয়ে মানুষের কাছে নিজের সমস্যার কথা প্রকাশ করতে লাগল। লোকেরা জিজ্ঞেস করত যে, এর আগে তোমরা কীভাবে চলতে। জবাবে তারা বলত, আমিরুল মুমিনীন হযরত আলী (রা.) গোপনে আমাদের সাহায্য করতেন। এতদিন একথা প্রকাশ করা নিষিদ্ধ ছিল কিন্তু এখন আমরা প্রয়োজনে সব প্রকাশ করছি। এভাবে অভাবী পরিবারকে নিয়মিত সহায়তা করার সুমহান অভ্যাস খলীফাতুল মুসলিমীন হযরত আবু বকর (রা.) এর জীবনেও দেখা যায়।

আল্লাহর রাসূল (সা.)-এর চার খলিফার জীবনে জনসেবা, মানবকল্যাণ ও সৃষ্টির প্রতি ভালোবাসা ছিল অপরিসীম। হজরত উমর (রা.) শাসক হয়ে রাতভর নাগরিকদের দুঃখ কষ্টের খবর নিতেন, নিজেই বোঝা বহন করে নিয়ে অভাবিদের ঘরে খাদ্য পানীয় পৌঁছে দিতেন। হজরত উসমান (রা.) তার বিপুল সম্পদ জনকল্যাণে ব্যয় করে দেন। ইসলাম জগতের সকল মনীষীও ছিলেন দান ও উদারতার আদর্শ।

হযরত উমর (রা.) একবার লোকেদের জিজ্ঞেস করলেন, বলো তো পরহেজগার কে? লোকেরা বলল, যে নামাজ পড়ে। হযরত উমর (রা.) বললেন, নামাজ তো পাপী তাপী লোকেরাও পড়ে। লোকেরা বলল, যে রোজা রাখে। তিনি বললেন, ফাসিক ফাজের লোকেরাও রোজা রাখে। লোকেরা আরো কিছু নেক আমলের কথা বললেও তিনি সেসব আমলে নিলেন না।

সবশেষে লোকজনের অনুরোধে তিনি বললেন, প্রকৃত পরহেজগার ওই ব্যক্তি যে গোপনেও আল্লাহকে ভয় করে। হালাল উপার্জন খায় এবং এভাবে দান করে যা আল্লাহ ছাড়া আর কেউ জানে না। জান্নাতি লোকেদের দৃষ্টান্ত দিতে গিয়ে নবী করিম (সা.) বলেছেন, ‘যে ব্যক্তি একহাতে দান করলে অন্য হাতও তা বুঝতে পারে না।’ শরীয়তে এমন নির্দেশও আছে যে, তুমি এবং তোমার প্রভুর মাঝে এমন কোনো গোপন নেক আমল থাকা চাই, যার দ্বারা তিনি সন্তুষ্ট হন। নীরবে গোপনে দান সহায়তা হতে পারে আল্লাহ এবং বান্দার মাঝে বিশেষ ভালোবাসার কারণ। এটি হতে পারে সওয়াবের গোপন একাউন্ট।

আধুনিক তুরস্কের এক প্রদেশের গভর্নর চলতি রমজানে তালিকা করে করে তার শহরের মুদির দোকানির বকেয়া খাতার এমন সব পাওনা টাকা শোধ করে দিচ্ছেন, যাদের আয় রোজগার কম এবং দোকানি জানে যে, মাস শেষে এদের বকেয়া পরিশোধে কষ্ট হয়। এভাবে দোকানি, গভর্নর অফিসের লোকজন, স্থানীয় রাজনৈতিক নেতা, কাউন্সিলর, সেবা সংস্থার লোকেরা মিলে মিশে গোটা অঞ্চলে এভাবে নাগরিকদের সহায়তা করে যাচ্ছেন।

বাংলাদেশেও বিত্তবানেরা লকডাউন, রমজান ও আর্থিক মন্দার এ সময়ে নিজ পাড়া, মহল্লা, গ্রাম ও এলাকার স্বল্পআয়ের লোকজনকে এভাবে সাহায্য করতে পারেন। নবী করিম (সা.) বলেছেন, রমজান সহমর্মিতার মাস।

আল্লাহ যদি আপনাকে চলনসই প্রয়োজনের চেয়ে বেশি রিজিক দিয়ে থাকেন, তাহলে আপনি আপনার অপর ভাইকে যথাসাধ্য সাহায্য করুন। নামাজ, রোজা, তিলাওয়াত, জিকির করার তুলনায় ক্ষেত্র বিশেষে অপরকে টাকা পয়সা খাদ্য ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি সাহায্য করার ফলে আল্লাহ অধিক সওয়াব দিয়ে থাকেন। জাহান্নাম থেকে মুক্তি দান করে থাকেন।

নবী করিম (সা.) বলেছেন, তোমরা এক ঢোক পানি, এক টুকরা খেজুর বা সামান্য খাদ্য দান করে হলেও জাহান্নাম থেকে আত্মরক্ষার চেষ্টা কর। বলেছেন, ক্ষুধার্তকে খাদ্যদান সর্বোত্তম সওয়াবের কাজ। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ বলেন, যারা আল্লাহর পথে নিজেদের মাল ব্যয় করে, তাদের (দানের) তুলনা সেই বীজের মতো, যাত্থেকে সাতটি শীষ জন্মিল, প্রত্যেক শীষে একশত করে দানা এবং আল্লাহ যাকে ইচ্ছে করেন, বর্ধিত হারে দিয়ে থাকেন। বস্তুত: আল্লাহ প্রাচুর্যের অধিকারী, জ্ঞানময়। (সূরা বাকারাহ : আয়াত ২৬১)

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (8)
Ahmed hossain khan ৬ মে, ২০২১, ১২:৪৯ এএম says : 1
Allah subhanahu k gupon a voy karider jonno nischoy royache koma o moha puroskar .
Total Reply(0)
মিরাজ আলী ৬ মে, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 1
আল্লাহ তাআলা দান-সাদকাসহ বান্দার সব কাজের বিষয়ে জানেন।
Total Reply(0)
হাদী উজ্জামান ৬ মে, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 1
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে প্রকাশ্যে এবং গোপনে আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভে দান করার তাওফিক দান করুন।
Total Reply(0)
Mizanur Rahman ৬ মে, ২০২১, ১:১৩ এএম says : 0
মহান আল্লাহ গোপনে দান করে অধিক সাওয়াব লাভের তাওফিক দান করুন। দানের মাধ্যমে গোনাহ থেকে মুক্তি এবং মর্যাদা বৃদ্ধির তাওফিক দান করুন। আমিন।
Total Reply(0)
সোয়েব আহমেদ ৬ মে, ২০২১, ১:১৪ এএম says : 0
অন্যের প্রতি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয়ার মর্যাদা সম্পর্কে পবিত্র কোরআনে বলা হয়েছে, ‘যারা নিজের সম্পদ দিনে বা রাতে প্রকাশ্যে অথবা গোপনে আল্লাহর পথে খরচ করে তাদের পুরস্কার প্রতিপালকের কাছে আছে। তাদের কোনো ভয় নেই। তাদের কোনো চিন্তাও নেই,’ (সূরা আল-বাকারা, আয়াত-২৭৪)
Total Reply(0)
তোফাজ্জল হোসেন ৬ মে, ২০২১, ১:১৪ এএম says : 0
প্রকাশ্য দানের চেয়ে গোপন দান আল্লাহ পছন্দ করেন বেশি। পবিত্র কোরআনে আল্লাহ বলেন, ‘তোমরা যদি প্রকাশ্যে দান কর তবে তা ভালো। আর যদি গোপনে দান কর তাহলে আরও ভালো, (সূরা আল-বাকারা, আয়াত-২৭১)।
Total Reply(0)
বদরুল সজিব ৬ মে, ২০২১, ১:১৫ এএম says : 0
আল্লাহতায়ালা আমাদের দান করার মানসিকতা তৈরি করার তাওফিক দিন। আমিন।
Total Reply(0)
Mahbub Rahman ৬ মে, ২০২১, ৭:১৭ এএম says : 0
আলহামদু লিল্লাহ, সুবহানাল্লাহ!
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন