মঙ্গলবার, ২৬ অক্টোবর ২০২১, ১০ কার্তিক ১৪২৮, ১৮ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

পর্দা নামল টোকিও অলিম্পিকের

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ আগস্ট, ২০২১, ৮:২৫ পিএম

৫ বছর ধরে বিশাল আয়োজন। বাস্তবায়ন হলো মাত্র ১৭ দিনে। জাপানের রাজধানী টোকিওতে বসেছিল ১১ হাজারেরও বেশি অ্যাথলেটের মিলনমেলা। সঙ্গে ছিল আরও কয়েক হাজার কর্মকর্তা-কর্মচারী। আয়োজক, সম্প্রচারক, স্বেচ্ছাসেবক থেকে শুরু করে অন্তত ২৫ থেকে ৩০ হাজার মানুষের বিশাল কর্মযজ্ঞ।

১৭ দিনের বিশাল এ আয়োজন শেষে পর্দা নামল রোববার (৮ আগস্ট)। বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে শেষ হলো টোকিও অলিম্পিক গেমস। বিদায়ী সম্ভাষণে টোকিও অলিম্পিক স্টেডিয়ামে মাস্ক পরে অ্যাথলেটরা মার্চপাস্টে অংশ নেন। যে মশালটি গত ২৩ জুলাই জ্বালানো হলো, সেই মশালটি ১৭ দিন জ্বালানোর পর অবশেষে নিভিয়ে দেওয়া হলো। তিন বছর পর সেই মশালটিই জ্বলে উঠবে আবার প্যারিসে, ফ্রান্সের রাজধানীতে।

এবারের টোকিও অলিম্পিক গেমস ছিল সত্যিই ব্যতিক্রমী। করোনা মহামারির কারণে একটি বছর পিছিয়ে দেওয়া হলো। ২০২০ সালের পরিবর্তে নিয়ে আসা হয় ২০২১ সালে। এবারও গেমস আয়োজন করা যাবে কিনা, তা নিয়ে ছিল সংশয়। কারণ জাপানে পাল্লা দিয়ে বাড়ছিল করোনা সংক্রমণ। অন্যদিকে অলিম্পিক আয়োজনের বিরোধিতা করে টোকিওর সড়কগুলোতে বিক্ষোভ চলছিল প্রায় প্রতিদিনই।

এতকিছু সত্ত্বেও টোকিও অলিম্পিক গেমস আয়োজক কর্তৃপক্ষ ঘোষণা দিয়েছিল, জরুরি অবস্থা জারি থাকলেও গেমস আয়োজন করা হবে। অবশেষে সব বাধা-বিপত্তি দুরে ঠেলে গত ২৩ জুলাই জ্বালানো হয় টোকিও গেমসের মশাল। জাপানের গ্র্যান্ডস্লাম জয়ী টেনিস খেলোয়াড় নাওমি ওসাকার হাতে জ্বলে ওঠে গেমসের মশাল। জাপানের সম্রাট নারুহিতো অলিম্পিকের উদ্বোধন ঘোষণা করেন। বর্ণিল আলোকসজ্জা, জাপানের নানা সংস্কৃতি ফুটিয়ে তোলার মধ্য দিয়ে পর্দা উঠে টোকিও অলিম্পিকের।

বিশ্বের সবচেয়ে বড় আন্তর্জাতিক এ ক্রীড়াযজ্ঞের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন হাতেগোনা ৯৫০ জন। প্রধান অতিথি হিসেবে ছিলেন জাপানের সম্রাট নারুহিতো। গত বছরের স্থগিত গেমসের উদ্বোধনী করেছেন তিনি।

২৩ জুলাই থেকে ৮ আগস্ট, মোট ১৭ দিনে ৫০টি ডিসিপ্লিনে মোট ৩৩৯টি স্বর্ণের লড়াই অনুষ্ঠিত হয়। ২০৬টি দেশের মোট ১১ হাজার ৬৫৬ জন অ্যাথলেট অংশগ্রহণ করেন এবারের অলিম্পিকে। করোনার কারণে ছিল কড়া বিধি-নিষেধ। যে কারণে অলিম্পিক ভিলেজে নানা সমালোচনারও শিকার হতে হয় আয়োজকদের।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন