বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৫ মাঘ ১৪২৮, ১৫ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

‘মেড ইন বাংলাদেশ’ এর ব্র্যান্ডিং এর আরও প্রচারণার উপর জোর দিয়েছেন বিজিএমইএ সভাপতি

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ নভেম্বর, ২০২১, ৮:৫৫ পিএম

বিজিএমইএ সভাপতি ফারুক হাসান বিশ্বব্যাপী ‘মেড ইন বাংলাদেশ’ এর প্রচারণার পাশাপাশি বাংলাদেশের ব্র্যান্ডিং এর জন্য আরও প্রচার প্রচারণা ও রোড-শো আয়োজনের উপর জোর দিয়েছেন। “নতুন ও উদীয়মান বাজার অন্বেষণের ক্ষেত্রে বাংলাদেশের অপার সম্ভাবনা রয়েছে। শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন হিসেবে বিজিএমইএ সম্ভাব্য বাজারগুলোতে বাণিজ্য মিশনে প্রতিনিধিদল প্রেরণ করেছে এবং এখনও পোশাক কূটনীতির ক্ষেত্রে বিজিএমইএ নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে”। তিনি “টেকসই প্রবৃদ্ধি অর্জনে বাংলাদেশ পোশাক শিল্পের সুযোগ এবং সম্ভাবনা” শীর্ষক ওয়েববিনারে এ কথা বলেন। রপ্তানি উন্নয়ন ব্যুরা (ইপিবি) ১৭ নভেম্বর “সোর্সিং বাংলাদেশ-২০২১, ভার্চুয়াল সংস্করণ” উপলক্ষে এই ওয়েবিনারের আয়োজন করে।

ওয়েবিনারে ইপিবি’র ভাইস-চেয়ারম্যান এ.এইচ.এম আহসান এর সভাপতিত্বে প্যানেলিষ্ট হিসেবে আলোচনায় অংশগ্রহন করেন ফজলুল হক, সভাপতি, বাংলাদেশ এমপ্লয়ার্স ফেডারেশন; এম.এস. সিদ্দিক, কো-কনভেনর, বাংলাদেশ কলামিষ্ট ফোরাম এবং মোঃ খোরশেদ আলম, চেয়ারম্যান, স্ট্যান্ডিং কমিটি অন ডেভলপমেন্ট অব লোকাল স্পিনিং এন্ড উইভিং মিলস অব বিটিএমএ।

মূল আলোচক হিসেবে ফারুক হাসান তার বক্তব্যে বৈশ্বিক বাজারে নন-কটন পণ্যের চাহিদা বেড়ে যাওয়ায় নন-কটন পণ্যের উপর অধিক মনোযোগ প্রদানের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন।

আমরা এখন বৈশ্বিক সোর্সিং প্রবণতার সাথে তাল মিলিয়ে নন-কটন ভিত্তিক টেক্সটাইল এবং পোশাকের উপর অগ্রাধিকার দিচ্ছি এবং এটি আগামী দিনে বিনিয়োগের একটি সম্ভাব্য ক্ষেত্র হতে পারে।"

তিনি বলেন, "ভার্চুয়াল মার্কেটপ্লেসও প্রবৃদ্ধির একটি বড় উৎস হতে পারে এবং আমাদের ঙঊগ (অরিজিনাল ইকুইপমেন্ট ম্যানুফ্যাকচারার) থেকে ঙউগ (অরিজিনাল ডিজাইন ম্যানুফ্যাকচারার) এ যেতে হবে।"

তিনি আরও বলেন, ব্যবসার নতুন অঙ্গনে প্রবেশের জন্য বৈদেশিক মুদ্রা নীতি, রপ্তানি ও আমদানি নীতি, কর নীতি প্রভৃতি নীতির সংস্কার জরুরি এবং একইসাথে উদ্ভাবনের সাথে জড়িত থেকে যারা নিজস্ব পণ্য ডেভলপ করবে, তাদের জন্য আর্থিক প্রণোদনা বাড়ানোর মতো বেশ কয়েকটি বিষয়ে কাজ করা গুরুত্বপূর্ণ।

বিজিএমইএ সভাপতি বলেন “আমাদের পশ্চাদসংযোগ টেক্সটাইল খাতে,বিশেষ করে ওভেন খাতে আরও বিনিয়োগ দরকার। টেক্সটাইল খাতে বিনিয়োগের জন্য অত্যন্ত সম্ভাবনাময় একটি ক্ষেত্র অনাবিষ্কৃত রয়েছে, আর তা হচ্ছে মানবসৃষ্ট ফাইবার ভিত্তিক ইয়ার্ন এবং ফেব্রিক্স যেমন পলিয়েস্টার, ভিসকস, স্প্যানডেক্স, মেলাঞ্জ প্রভৃতি”।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন