বৃহস্পতিবার, ১৯ মে ২০২২, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

বাংলাদেশ-নেপাল দু’দলই চায় জিততে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১০ ডিসেম্বর, ২০২১, ৯:১২ পিএম

সব প্রস্তুতি সম্পন্ন। চার বিদেশি দল যথাক্রমে ভারত, ভুটান, শ্রীলঙ্কা ও নেপাল-এখন ঢাকায়। স্বাগতিক বাংলাদেশসহ পাঁচ দেশকে নিয়ে শনিবার থেকে মাঠে গড়াচ্ছে সাফ অনূর্ধ্ব-১৯ নারী ফুটবল চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা। কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে উদ্বোধনী দিনই মাঠে নামছে বাংলাদেশ। সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হওয়া ম্যাচে বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ শক্তিশালী নেপাল। এর আগে বিকাল ৩টায় টুর্নামেন্টের উদ্বোধনী ম্যাচে ভুটান লড়বে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

প্রথম ম্যাচে নেপালকে হারাতে চায় বাংলাদেশ। অতিথি দল নেপালেরও অভিন্ন লক্ষ্য। শুক্রবার ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলনে এমনটাই জানান বাংলাদেশ ও নেপাল অনূর্ধ্ব-১৯ নারী দলের অধিনায়ক এবং কোচ। এদিন দুপুরে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ অধিনায়ক মারিয়া মান্ডা বলেন, ‘বিগত দিনে আমরা যে পারফরম্যান্স দেখিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছি, সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চাই। আমরা ভালো ফুটবল খেলে দর্শকদের আনন্দ দিতে চাই এবং চ্যাম্পিয়ন হতে চাই।’

টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হতেই তার শিষ্যরা লড়বে বলে জানান স্বাগতিক কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন। তার কথায়, ‘মেয়েরা চ্যাম্পিয়ন হওয়ার জন্যই খেলবে। আমার বিশ্বাস তারা পারবে সেরার খেতাব জিততে। আর তা অর্জন করতে হলে নেপালের বিপক্ষে জয় দিয়েই টুর্নামেন্ট শুরু করা প্রয়োজন। দলের শক্তি অনুযায়ী আমি আশাবাদি মেয়েরা নেপালকে হারিয়েই শুরু করবে।’

নেপালের কোচ হারি ওম শ্রেষ্ঠার চোখও শিরোপায়, ‘আমরা এখানে চ্যাম্পিয়ন হতেই এসেছি। সেভাবেই খেলতে চাই।’ অধিনায়ক অঞ্জনা রানা মাগার বলেন, ‘সাফের এই টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার প্রস্তুতি নিয়েই এসেছি আমরা। স্বপ্নপূরণে বাংলাদেশকে হারিয়ে আসর শুরু করতে চাই। আশা করছি সতীর্থরা মাঠে নিজেদের সেরাটা ঢেলে দিয়ে ম্যাচ জিততে চেষ্টা করবে।’

বাংলাদেশ দল- মারিয়া মান্ডা (অধিনায়ক), রুপনা চাকমা, ইয়াসমিন আক্তার, ইতি রানী, আঁখি খাতুন (সহ-অধিনায়ক), শামসুন্নাহার (সিনিয়র), আনাই মগিনি, নাসরিন আক্তার, নিলুফা ইয়াসমিন নীলা, আফেইদা খন্দকার, উন্নতি খাতুন, কোথাই কিসকু, মনিকা চাকমা, সোহাগী কিসকু, শাহেদা আক্তার রিপা, ঋতুপর্ণা চাকমা, মারজিয়া আক্তার, স্বপ্না রানী, তহুরা খাতুন, আনুচিং মগিনি, হালিমা খাতুন, শামসুন্নাহার (জুনিয়র) ও রেহেনা আক্তার।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন