বৃহস্পিতবার, ১৮ আগস্ট ২০২২, ০৩ ভাদ্র ১৪২৯, ১৯ মুহাররম ১৪৪৪

ব্যবসা বাণিজ্য

ভোজ্যতেলসহ নিত্যপণ্যের মূল্যবৃদ্ধিতে ইউট্যাবের উদ্বেগ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০২২, ১২:০১ এএম

ভোজ্যতেল সয়াবিনসহ অতিপ্রয়োজনীয় নিত্যপণ্যের ক্রমাগত মূল্যবৃদ্ধিতে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে সাধারণ মানুষের দুর্ভোগ কমাতে সরকারকে দ্রুত পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানিয়েছে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের সংগঠন ইউনিভার্সিটি টিচার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ইউট্যাব)। গতকাল শুক্রবার এক বিবৃতিতে ইউট্যাবের প্রেসিডেন্ট অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম ও মহাসচিব অধ্যাপক ড. মো: মোর্শেদ হাসান খান বলেন, বিগত দুই বছর মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে অসংখ্য মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। বিশেষভাবে শ্রমজীবী ও মধ্যবিত্ত এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত গোষ্ঠী সবচেয়ে বেশি বিপদে পড়েছেন। অনেকের আয়ের পথ বন্ধ হয়েছে। অনেকেই ঢাকা ছেড়ে গ্রামে গেছেন। এরইমধ্যে বৃহস্পতিবার সয়াবিন তেলের লিটার প্রতি দাম বেড়েছে ৩৮ টাকা। পাশাপাশি অতিপ্রয়োজনীয় নিত্যপণ্য যেমন- চাল, ডাল, জ্বালানি তেল, গ্যাস-বিদ্যুতের মূল্য বেড়েছে কয়েকগুণ। ক্রমাগত মূল্যবৃদ্ধিতে মানুষ এখন দিশেহারা। তারা বলেন, আজকে বাজারে সয়াবিন তেল মিলছেনা। ক্ষমতাসীন দলের অসাধু ও মুনাফাখোর ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে নিজেরাই অবৈধভাবে বাজারে তেলের কৃত্রিম সঙ্কট তৈরি করছে। যার প্রভাব পড়ছে সাধারণ ভোক্তাদের ওপর। মানুষ ঈদের সময় যেখানে পরিবারের সাথে আনন্দঘন পরিবেশে থাকার কথা সেখানে বাজারে সয়াবিনের সঙ্কট তাদেরকে আরো বেশি বিচলতি করেছে।

নেতৃদ্বয় বলেন, বাংলাদেশে বর্তমানে জনগণের ভোটের মাধ্যমে নির্বাচিত সরকার না থাকায় হুটহাট করে নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে মানুষকে বিপদে ফেলা হচ্ছে। এর পেছনে ক্ষমতাসীন দলের অসাধু ব্যবসায়ী ও সিন্ডিকেট দায়ী। এভাবে দেশে সব সেক্টরে অরাজকতা চলতে থাকলে মানুষ এক সময় ক্ষুব্ধ হয়ে রাজপথে নামতে বাধ্য হবে। সুতরাং সময় থাকতেই তেল সহ নিত্যপণ্যের দাম কমানোর জন্য সরকারকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানান। অন্যথায় সরকারকে কঠোর পরিস্থিতির মোকাবিলা করতে হবে বলে হুঁশিয়ারি দেন ইউট্যাবের প্রেসিডেন্ট এবং মহাসচিব।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন