শনিবার, ০২ জুলাই ২০২২, ১৮ আষাঢ় ১৪২৯, ০২ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

ব্যবসা বাণিজ্য

খোলাবাজারে ডলারের দামে ‘সেঞ্চুরি’

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ মে, ২০২২, ৬:০২ পিএম

খোলাবাজারে ডলারের দাম আবারও বেড়েছে। ডলারের দাম ১০০ টাকা ছাড়িয়েছে। একদিকে চলছে ডলার সঙ্কট, অন্যদিকে যা পাওয়া যাচ্ছে তা কিনতে হচ্ছে চড়া দামে। আজ মঙ্গলবার প্রথমবারের মতো ডলারের দর উঠেছে ১০১ থেকে ১০২ টাকায়। গতকাল সোমবারও খোলাবাজারে ৯৭ থেকে ৯৮ টাকা দরে ডলার বিক্রি হয়।

অর্থনীতিবিদরা বলছেন, ডলারের দাম বেড়ে যাওয়ায় বেড়ে যাবে আমদানি খরচ। এতে করে দ্রব্যমূল্যের দাম বৃদ্ধি পাবে। অন্যদিকে দামবৃদ্ধিতে বিলাসবহুল পণ্য আমদানিতে নিরুৎসাহিত হবে মানুষ। এতে করে রিজার্ভে টান পড়বে না বলে জানিয়েছেন বিশ্লেষকরা।

মঙ্গলবার (১৭ মে) কার্ব মার্কেট পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, বাজার থেকে এক ডলার কিনতে ১০০ টাকা ৫০ পয়সা থেকে ১০১ টাকা দিতে হয়েছে। এর আগে কখনো ডলারের দর ১০০ টাকা অতিক্রম করেনি। আমদানিতে ব্যাপক প্রবৃদ্ধি, রেমিট্যান্স কমাসহ বিভিন্ন কারণে ডলারের ব্যাপক সঙ্কট তৈরি হয়েছে। গত আগস্টে ৪৮ বিলিয়ন ডলারের ঘর অতিক্রম করা রিজার্ভ এখন ৪১ বিলিয়র ডলারের ঘরে নেমেছে। আমদানি দায় মেটাতে এখন ৯৭ টাকা পর্যন্ত দরে ডলার কিনতে হচ্ছে, যার প্রভাবে পণ্যমূল্য ব্যাপক বাড়তে পারে। সোমবার (১৬ মে) ৯৭ টাকা ২০ পয়সা থেকে ৩০ পয়সায় ডলার বিক্রি হয়েছিল। এর আগে সোমবার (১৬ মে) দেশের ইতিহাসে টাকার মান নেমে গেছে রেকর্ড পরিমাণে। একদিনে ডলারের বিপরীতে টাকার মান কমে ৮০ পয়সা। যদিও আন্তব্যাংক মুদ্রাবাজারে ডলার বিক্রি হচ্ছে ৮৭ টাকা ৫০ পয়সায়। গত সপ্তাহে এর দাম ছিল ৮৬ টাকা ৭০ পয়সা। ঈদের ছুটির আগে ২৭ এপ্রিল ডলারের বিপরীতে টাকার মান ২৫ পয়সা কমিয়েছিল বাংলাদেশ ব্যাংক। তার আগে প্রতি ডলারের জন্য ৮৬ টাকা ২০ পয়সা লাগত। এরপর ১০ এপ্রিল আরও ২৫ পয়সা কমিয়ে ৮৬ টাকা ৭০ পয়সা নির্ধারণ করে দেয় কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

ব্যাংকে ডলার লেনদেন পর্যবেক্ষণ করে দেখা যায়, রাষ্ট্রায়ত্ত সোনালী ও জনতা মঙ্গলবার ৯২ টাকা দরে নগদ ডলার বিক্রি করেছে। অগ্রণী ব্যাংক বিক্রি করেছে ৯২ টাকা ৫০ পয়সা দরে। বেসরকারি ইস্টার্ন ব্যাংকও ৯২ টাকা ৫০ পয়সা দরে বিক্রি করেছে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps