বৃহস্পতিবার, ০৬ অক্টোবর ২০২২, ২১ আশ্বিন ১৪২৯, ০৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নারায়ণগঞ্জের অনেকেই লন্ডনে থাকা নেতার কথায় নাচতাছেন: শামীম ওসমান

নারায়ণগঞ্জ জেলা সংব্দদাতা | প্রকাশের সময় : ১৫ আগস্ট, ২০২২, ৮:১৫ পিএম

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জন্য মায়া হয় মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি শামীম ওসমান। তিনি বলেছেন, নারায়ণগঞ্জের অনেকেই লন্ডনে থাকা নেতার কথায় নাচতাছেন। যারা নাচুইন্না বুড়ি তাদের বলি, নাইচা যদি গর্তে ঢুকেন তাহলে আমাদের বিচ্ছু বাহিনী কিন্তু ঠিকই হাত দিয়ে বের করে নিয়ে আসবে। বার বার একই জিনিস চলে না। এবার আগুন দিবেন মানুষ পুড়িয়ে মারবেন সেটা আর হবে না। এবার যদি আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনাও বলেন যে শান্ত হও তাও হবো না। এবার কেউ কারো কথায় শুনবে না। নেতায় লন্ডনে বসে হুকুম দেয় আর আপনি নাচবেন হবে না। ওর তো কিছু হবে না। ফাঁসবেন তো আপনি। সাহস থাকলে নেতাকে লন্ডন থেকে দেশে আসতে বলেন। নিজের মা মরে মরে আসে না আর আপনার জন্য আসবে কোন দুঃখে। যার মায়ের প্রতি দরদ নাই তার আবার দেশের প্রতি দরদ কেন। তুই আইতে না পারলে না আস সমস্যা নাই। ছেলের বউ এত বড় ডাক্তার মা অসুস্থ চিকিৎসার জন্য আসে না। আচ্ছা বুঝলাম বউ বোধহয় স্বামীকে ভালোবাসে না। আচ্চা নাতনি তো আছে। সে তো আসতে পারতো। সেও আসেনি। আহারে খালেদা জিয়ার জন্য আমার বড় মায়া লাগে। খুবই কষ্ট লাগে। তাই বলি তার কথায় অনেকেই নাচানাচি করে লাভ হবে না।

তিনি বলেন, দেশে কোন ধরনের ঝামেলা করার চেষ্টা হলে প্রতিরোধ নারায়ণগঞ্জ থেকে শুরু হবে, খেলা হবে। সে খেলায় আমরা জিতবো ইনশাআল্লাহ। আমরাই খেলবো। কারণ শয়তান শয়তানি করতে পারে কিন্তু আল্লাহর সাথে পারেনা। আল্লাহর রহমত আছে শেখ হাসিনার উপর।

তিনি বলেন, মানুষ চায় তারা যেখানে থাকবে সেখানে কেউ মাদক বিক্রি করতে পারবেনা, থাকবেনা মাদক সন্ত্রাস কিংবা চাঁদাবাজ। মানুষ চায় আমার জমিতে কেউ সাইনবোর্ড লাগাবেনা, কারো মেয়ে ঘর থেকে বাইরে গেলে নিরাপদে থাকবে। একাজটা আমি একা পারবোনা। সমাজের ভালো মানুষদের নিয়ে করতে চাই, যে যেই দলই করুক।

শামীম ওসমান বলেন, আমাদের হাইব্রিড দরকার নাই। হাইব্রিড পেছনেই থাইকেন। নামাজ যে পড়বেন সে ঈমামের পেছনে দাঁড়িয়ে পড়বেন। ঈমামের সামনে গেলে কিন্তু নামাজ হবে না। নেতা হোন মন্ত্রী হোন মেয়র হন আপত্তি নাই ঈমামের পেছনে থাইকেন।

সোমবার (১৫ আগস্ট) বিকেলে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা আওয়ামীলীগ আয়োজিত শোক দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন তিনি।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন