সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪, ২০ ফাল্গুন ১৪৩০, ২২ শাবান সানি ১৪৪৫ হিজরী

খেলাধুলা

স্মরণীয় প্রত্যাবর্তনে বার্সাকে বিদায় দিল ইউনাইটেড

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ৯:৫৬ এএম | আপডেট : ৯:৫৬ এএম, ২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

প্রথমার্ধ এগিয়ে থেকে শেষ করেও পারল না বার্সেলোনা। বিরতির পর দুই ব্রাজিলিয়ানের গোলে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের করল রাজস্বিক প্রত্যাবর্তন।ফলে চ্যাম্পিয়নস লীগের পর ইউরোপা লীগ থেকেও খালি হাতে ফিরতে হল স্প্যানিশ জায়ান্টদের।

বৃহস্পতিবার রাতে ঘরের মাঠ ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ২-১(দুই লেগ মিলিয়ে ৪-৩)গোলে জিতেছে এরিক টেন হাগের শিষ্যরা। দ্বিতীয় লেগের ম্যাচের শুরুর দিকে লেভানডোফস্কির স্পটকিক থেকেলক্ষ্যভেদে এগিয়ে যায় বার্সা। যদিও সেই পেনাল্টির সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক হয়েছে অনেক। ১-০ গোলে এগিয়ে প্রথমার্ধ শেষ করে জয়ের সুবাতাস পাচ্ছিল কাতালানরা। তবে রোমাঞ্চের তখনও ছিল ঢের বাকি।

ওল্ড ট্রাফোর্ডে যে রেড ডেভিলসরা সহজে হার মানেনা।দ্বিতীয়ার্ধে ফ্রেড স্বাগতিকদের সমতায় ফেরানোর পর ব্যবধান গড়ে দেন আন্তোনি।

৪৭ মিনিটে স্বাগতিকদের সমতায় ফেরান ফ্রেড।ফার্নান্দেজে এসিস্ট থেকে নিখুঁতভাবে লক্ষ্যভেদ করেন এই ব্রাজিলিয়ান তারকা।

তবে ‘থিয়েটার অব ড্রিমসে’ স্বপ্নের মুহূর্তটা আসে ৭৩ তম মিনিটের মাথায়।অসাধারণ ব্যাকহিলে বল নিজের নিয়ন্ত্রণে নেন লুক শ। তাঁর থেকে বল পান ফার্নান্দেজ। এরপর রাফিনিয়াকে কাটিয়ে তরুণ তুর্কি আলেহান্দ্রো গারনাচোর দিকে বল বাড়িয়ে দেন । গারনাচো খুঁজে ফ্রেডকে। তিনি দেন ফাঁকায় দাঁড়িয়ে থাকা আরেক ব্রাজিলিয়ান এন্টোনিকে। বাঁ পায়ের নিচু কোনাকোনি শটে নিখুঁত ফিনিশিংয়ে এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড বাকি কাজটা সারেন।২-১ গোলে লিড নেয় ইউনাইটেড।

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্ন মিউনিখ ও ইন্টার মিলানের গ্রুপে ছিল বার্সা। তাদেরকে টপকে ওই দুই দল পৌঁছায় নকআউটে। চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ পর্ব থেকে ছিটকে যাওয়ার পর ইউরোপা লিগেও তাদের অভিযান লম্বা হলো না। নকআউট রাউন্ডের প্লে অফেই থামল এবারের মৌসুমে তাদের ইউরোপিয়ান প্রতিযোগিতায় পথচলা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন