শনিবার, ১৫ জুন ২০২৪, ০১ আষাঢ় ১৪৩১, ০৮ যিলহজ ১৪৪৫ হিজরী

বিনোদন প্রতিদিন

বাংলাদেশে মুক্তির অনুমতি পাচ্ছে ‘পাঠান’

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ১১:০২ এএম | আপডেট : ১২:১৮ পিএম, ২৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩

বিশ্বব্যাপী হাজার কোটি ব্যবসা করা ‘পাঠান’ সাফটা চুক্তিতে গত ২৪ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশে মুক্তির কথা শোনা গেলেও নানা জটিলতায় এদিন মুক্তি পায় সিনেমাটি। তবে অবশেষে সিনেমাটি বাংলাদেশে আমদানির অনুমতি পেতে যাচ্ছে। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে মঙ্গলবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) অনুমতি পাওয়ার কথা।

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব ফারুক আহমেদ সাংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমরা আমাদের দিক থেকে ফাইল ছেড়ে দিয়েছি। আমরা আমাদের কিছু অবজারভেশনের কথাও বলেছি, যা আপনারা জানেন। তবে পজেটিভলি বলেছি আমরা। এখন সচিব ও মন্ত্রী মহোদয় চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিবেন। আশা করছি মঙ্গলবার মন্ত্রী মহোদয় অফিসে আসলেই অনুমতি পেয়ে যাবে।

সাফটা চুক্তির আওতায় গেল জানুয়ারিতে অ্যাকশন কাট এন্টারটেইনমেন্টের ব্যানারে সিনেমাটি আমদানির অনুমতি চেয়ে মন্ত্রণালয়ে আবেদন করেন অনন্য মামুন। তিনি শাকিব খান অভিনীত ‘পাঙ্কু জামাই’-এর বিনিময়ে এ সিনেমাটি আনছেন। তবে ‘পাঠান’ আমদানির আবেদনের পর তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় থেকে সাফটা চুক্তির দুটি ধারা সাংঘর্ষিক বলে এ ব্যাপারে আপত্তি জানানো হয়। যেখানে একটি ধারায় একটি সিনেমার বিনিময়ে আরেকটি সিনেমা পণ্যের মতো আমদানি-রফতানি করা যাবে বলা হলেও আরেকটি ধারায় উপমহাদেশীয় ভাষার সিনেমার বিনিময় করা যাবে না বলে বলা হয়। এ নিয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের ব্যাখা চাওয়ার কথা বলা হলেও শেষ পর্যন্ত তা হয়নি।

এদিকে সিনেমা হল মালিকরা ছাড়া চলচ্চিত্রের সকল সংগঠন থেকে হিন্দি ছবি আমদানির ব্যাপারে আগে আপত্তি থাকলেও সম্প্রতি ১৯টি সংগঠন লিখিত দিয়েছে তাদের কোনো আপত্তি নেই। তবে একইসঙ্গে শর্ত জুড়ে দেয় এ আমদানি দুই বছরের জন্য সাময়িক অনুমতি যেনো হয়। এই সময়ে প্রথম বছরে ১০টি, দ্বিতীয় বছরে ৮টি ছবি, মোট ১৮টি ছবি আমদানির অনুমতির সুপারিশ করেন নেতারা। একইসঙ্গে তারা আরেকটি এই শর্ত দেন— এই দুই বছর বাংলা ছবির পরিমাণ উল্লেখযোগ্য পরিমাণে বাড়লে যাতে আর হিন্দি ছবি চালানোর অনুমতি দেওয়া না হয়।

তবে জানা গেছে, আগামী ৩ মার্চ ছবিটি মুক্তির ব্যাপারে সকল প্রকার প্রস্তুতি সম্পূর্ণ করেছেন অনন্য মামুন। দেশের অনেক সিনেমা হলেও ‘পাঠান’-এর পোস্টার লাগানো হয়েছে। প্রথম সপ্তাহে যে কয়টা হল পান না কেনো দ্বিতীয় সপ্তাহে ৬০টি হলে ছবিটি মুক্তির প্রস্তুতি নিয়েছেন তিনি। এজন্য প্রয়োজনীয় সার্ভার ও প্রজেকশন সিস্টেম আনতে এ মুহূর্তে ভারতে অবস্থান করছেন মামুন।

সেখান থেকে তিনি বলেন, ‘আমরা এখনো অনুমতির চিঠি পাইনি। এর আগে কবে মুক্তি তা বলতে পারছি না। অনুমতি পাওয়ার ১ বা ২ দিনের মধ্যে মুক্তি দিবো আমরা।’

উল্লেখ্য, ‘পাঠান’ যদি মুক্তি পায় তবে এর মাধ্যমে আট বছর পর বাংলাদেশের সিনেমা হলগুলোতে চলবে হিন্দি ছবি। সর্বশেষ সালমান খানের ‘ওয়ানটেড’ মুক্তি পেয়েছিল ২০১৫ সালে। সে সময় ছবিটি বাংলাদেশের সিনেমা হলে ব্যবসায়িকভাবে চরম লোকসানের মুখে পড়ে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন