ঢাকা, বুধবার, ০৮ এপ্রিল ২০২০, ২৫ চৈত্র ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

সরে দাঁড়ালেন রুহুল আমিন

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৮ ফেব্রুয়ারি, ২০২০, ১২:০০ এএম

বাংলাদেশের ফুটবল উন্নয়নে কাজ করতে বেশ ক’বছর ধরে দৌঁড়-ঝাপ করছেন সাইফ পাওয়ারটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক, জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল সংগঠক পরিষদের চেয়ারম্যান, বাংলাদেশ ক্লাব ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ও চট্টগ্রাম আবাহনী লিমিটেডের সহ-সভাপতি তরফদার মো. রুহুল আমিন। বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) নির্বাচনকে সমানে রেখে দীর্ঘ দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে আলোচনায় আছেন তিনি। এই সময়ে বাফুফে সভাপতি পদে প্রার্থী হতে নির্বাচনের মাঠ চষে বেড়িয়েছেন এই ফুটবল সংগঠক। রাজধানী ঢাকা থেকে জেলা শহর এমনকি অজোঁপাড়াগাঁয়েও গেছেন ফুটবল সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলতে। কিভাবে দেশের ফুটবলকে উন্নতীর শিখরে পৌঁছে দেয়া যায় তার উপায় খুঁজে বেড়াচ্ছেন সারাক্ষণ। কিন্তু হঠাৎ করেই তরফদার রুহুল আমিন ঘোষণা দেন তিনি বাফুফের আসন্ন নির্বাচন সরে দাঁড়ালেন। ১৬ ফেব্রæয়ারি সন্ধ্যায় ক্রীড়াঙ্গনে এই খবরটি হাওয়ায় ভেসে বেড়ালেও গতকাল তা পরিষ্কার হয়ে যায়। আনুষ্ঠানিকভাবে জানা যায়, সত্যিই বাফুফে নির্বাচনে প্রার্থী হচ্ছেন না তরফদার মো. রুহুল আমিন। এদিন তিনি নিজেই বাফুফে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিলে আলোড়ন সৃষ্টি হয় দেশের ফুটবলাঙ্গনে। জানা যায়, রুহুল আমিন নাকি বাফুফের বর্তমান সভাপতি কাজী মো. সালাউদ্দিনকে ফোন করে বলেন যে, তিনি নির্বাচন করবেন না। রুহুল আমিনের এমন ঘোষণায় আগেরদিন সন্ধ্যায় ক্রীড়াঙ্গনের সবচেয়ে বড় প্রশ্ন ছিল- বাফুফে সভাপতি পদে নির্বাচন করার ঘোষণা দিয়ে এতদিন প্রচরণা চালিয়ে কেন সরে গেলেন তরফদার? এই প্রশ্নের উত্তর দিতেই কাল দুপুরে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করেন সাইফ পাওয়ারটেকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক। মহাখালীস্থ রূপায়ন সেন্টারে নিজ ব্যবসায়িক কার্যালয়ে আয়োজিত জনাকীর্ণ সংবাদ সম্মেলনে তরফদার রুহুল আমিন বলেন, ‘বাফুফের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে চরম অস্থিরতার সৃষ্টি হয়েছে। কাজী সালাউদ্দিনের পক্ষের লোকজন নানা ধরনের কথা বলছেন। আমার পক্ষের লোকজনও নানা ধরনের কথাবার্তা চালিয়ে যাচ্ছেন। তাই মনে হয়েছে, সভাপতি পদে আমার নির্বাচন করাটা দেশের ফুটবলের জন্য শুভ হবে না। তাই ফুটবলের স্বার্থেই আমি সভাপতি পদে নির্বাচন করব না, এটা আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত। নির্বাচন করা সবার গণতান্ত্রিক অধিকার। আমার সংগঠনের কেউ করলেও করতে পারেন। আর আমি সভাপতি পদে নির্বাচন না করলেও নির্বাচনী মাঠ ছাড়ছি না। কারা কোন পদে নির্বাচন করবেন সেটা আমরা পরবর্তীতে ঠিক করব।’ সাংবাদিকদের প্রশ্ন ছিল, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে বর্তমান মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দিন পুনরায় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাননি, এটার কোনো প্রভাব এখানে পড়েছে কিনা? এ প্রশ্নের উত্তরে রুহুল আমিন বলেন, ‘না, ওটা রাজনৈতিক বিষয়, এটা ক্রীড়াঙ্গনের বিষয়। দুটোর মধ্যে কোনো যোগসাদৃশ্য নেই। এটা সম্পূর্ণই আমার ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত।’ সংবাদ সম্মেলনে বাফুফের বর্তমান কমিটির অন্যতম সহ-সভাপতি মহিউদ্দিন মহি ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জেলা ও বিভাগীয় ফুটবল সংগঠক পরিষদ এবং বাংলাদেশ ক্লাব ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের অন্যান্য কর্মকর্তা বৃন্দ।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন