বুধবার, ০৪ আগস্ট ২০২১, ২০ শ্রাবণ ১৪২৮, ২৪ যিলহজ ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

দেশে ফিরে তিন দিনের কোয়ারেন্টিনে জামালরা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৭ জুন, ২০২১, ৮:২৮ পিএম

বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বের বাকি তিন ম্যাচ শেষে দেশে ফিরে এসেছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। কাতারের দোহায় বাছাই পর্বের ষষ্ঠ ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ১-১ ব্যবধানে ড্র করলেও শেষ দুই ম্যাচে ভারত এবং ওমানের কাছে হেরেছে বাংলাদেশ। স্বাভাবিকভাবেই লাল-সবুজের ফুটবলারদের মুখ গোমড়া করে ঘরে ফেরার কথা ছিল। কিন্তু না, বেশ ফুরফুরে মেজাজেই হাসিমুখেই বৃহস্পতিবার ভোর ৪টায় ঢাকায় ফেরেন জামাল ভূঁইয়া-তপু বর্মণরা। এর কারণ অবশ্য আছে। বিশ্বকাপ বাছাইয়ে সফল না হলেও সরাসরি এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বে খেলার সুযোগ পেয়েছে বাংলাদেশ। আর এ কারণেই ফুটবলার থেকে শুরু করে লাল-সবুজের কোচিং স্টাফদের সবার মুখে চাওড়া হাসি! বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপের যৌথ বাছাইয়ে যে লক্ষ্য ছিল বাংলাদেশের ব্রিটিশ কোচ জেমি ডে’র, তা আপাতত পূরণ হয়েছে। আর এতেই খুশি জাতীয় দলের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট সবাই। কাতার থেকে সুখবর নিয়ে এসে জামাল ভূঁইয়ারা এখন তিন দিনের হোম কোয়ারিন্টিনে থাকবেন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণাললয়ের বিধিনিষেধ যথাযথভাবে পালন শেষে জাতীয় দলের সব ফুটবলার নেমে পড়বেন ঘরোয়া সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) দ্বিতীয় পর্বে। আগামী সপ্তাহে মাঠে গড়াবে বিপিএলের খেলা। বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ‘ই’ গ্রুপে বাংলাদেশ ৮ ম্যাচের মধ্যে দু’টিতে ড্র করে হেরেছে ছয় ম্যাচে। পাঁচ দলের গ্রুপে পয়েন্ট টেবিলে লাল-সবুজদের অবস্থান সবার শেষে হলেও জামাল ভূঁইয়ারা ২০২৩ এশিয়ান কাপের প্লে-অফে না খেলেই সরাসরি বাছাই পর্বে খেলার সুযোগ পেয়েছেন।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস পরিস্থিতির জন্য উত্তর কোরিয়া আগেই নাম প্রত্যাহার করে নেয়ায় বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ যৌথ বাছাইয়ে এখন ৩৯টি দল খেলছে। এখান থেকে সব গ্রুপের পঞ্চম হওয়া দলগুলোর মধ্যে সেরা তিনে থাকায় বাংলাদেশ সরাসরি এশিয়ান কাপ বাছাই পর্বে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছে। ১৫ জুন এশিয়ান অঞ্চলে বিশ্বকাপ ও এশিয়ান কাপ বাছাইয়ের দ্বিতীয় পর্ব শেষ হয়েছে। এই পর্ব শেষে পয়েন্টের ভিত্তিতে ৩৯ দলের মধ্যে লাল-সবুজদের অবস্থান ৩৫তম। ১ থেকে ১৩তম স্থানে থাকা দলগুলো ২০২৩ এশিয়ান কাপে সরাসরি খেলবে। ১৪ থেকে ৩৫তম অবস্থানে থাকা ২২টি দেশ সরাসরি খেলবে বাছাই পর্বে। আর ৩৬ থেকে ৩৯তম স্থানে থাকা দেশগুলোর মধ্য থেকে চারটি যথাক্রমে ইন্দোনেশিয়া, কম্বোডিয়া, চাইনিজ তাইপে ও গুয়াম’কে খেলতে হবে এশিয়ান কাপের প্লে-অফ পর্বে। এ পর্বের দুই সেরা দল ২২ দলের সঙ্গে বাছাইয়ে যোগ দেবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন