রোববার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৮ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ রবিউল আউয়াল সফর ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ময়মনসিংহে ইউএনও’র বিরুদ্ধে ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন, আজ প্রত্যাহার দাবি

মোঃ শামসুল আলম খান | প্রকাশের সময় : ১ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ১০:৩১ পিএম

ময়মনসিংহের ফুলবাড়ীয়া উপজেলার কেশরগঞ্জ বাজারে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আশরাফুল ছিদ্দিকের নির্দেশে ব্যবসায়ীদের উপর বেপরোয়া লাঠিচার্জ করার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। মানববন্ধনের পর থেকে ইউএনও-র প্রত্যাহার চেয়ে ব্যবসায়ীসহ সকলের মধ্যে তীব্র আলোচনা চলছে।এ বিষয়ে ৭ দিনের মাঝে তদন্ত সাপেক্ষে ইউএনও আশরাফুল ছিদ্দিক এর বিচার না হলে ব্যবসায়ীরা জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদানসহ কর্মসূচী ঘোষণা করতে বাধ্য হবেন বলেও জানা গেছে।

উল্লেখ্য যে, ফুলবাড়ীয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে দীর্ঘদিন যাবৎ স্থানীয় সংসদ সদস্যের সাথে রশি টানাটানি চলছে। ইতিমধ্যে গত কিছুদিন আগে মাসিক সমন্বয় সভায় তোপের মুখে জ্ঞান হারাবার মত ঘটনা ঘটিয়েছেন ইউএনও আশরাফ ছিদ্দিক।

ঘটনাসূত্রে জানা যায়, গত সোমবার দুপুর সাড়ে বারোটার দিকে ইউএনও সঙ্গীয় আনসার বাহিনী নিয়ে কেশরগঞ্জ বাজারে গিয়ে আকস্মিকভাবে ফুটপাত দখল মুক্ত করতে অভিযান চালায়। এ সময় রাস্তার পাশে থাকা মোটর সাইকেল, চা স্টলের কেটলি, মনোহারী দোকানের মালামাল, হোটেলের জ্বলন্ত গ্যাস সিলিন্ডার লাথি দিয়ে ফেলে দেয়।

এক পর্যায়ে একটি জুয়েলারী দোকানের সামনে মোটরসাইকেল রাখার অভিযোগে জুয়েলারী দোকান কর্মচারী ও পথচারীদের উপর বেপরোয়া লাঠিচার্জ করার নির্দেশ দেয় ইউএনও। এতে স্থানীয় বাদীহাটী এলাকার চা দোকানী রাসেদ (৩০) রক্তাক্ত জখমসহ কমপক্ষে ১০ থেকে ১৫ ব্যবসায়ী ও দোকান কর্মচারী আহত হয়। ঘটনা তাৎক্ষনিক ফেইসবুকে ভাইরাল হলে স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বাজার কমিটির সদস্যদের মাঝে ব্যাপক ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এ ঘটনার প্রতিবাদে ইউএনও’র বিচার চেয়ে এই মানববন্ধন করেন ব্যবসায়ীরা।

এতে বক্তব্য রাখেন বাজার কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা (অবঃ সার্জেন্ট) আব্দুল খালেক, হার্ডওয়ার ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ প্রমূখ।

মানববন্ধনে আব্দুল খালেক বলেন, ইউএনও নির্দেশে নিরীহ দোকান মালিক ও কর্মচারীদের উপর যে হামলা চালিয়েছে তা ভাষায় প্রকাশ করার মত নয়। এই হামলা-ভাংচুরে ক্ষয়ক্ষতির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

তিনি আরও বলেন, তদন্ত সাপেক্ষে আগামী ৭ দিনের মধ্যে ইউএনও আশরাফুল ছিদ্দিক এর বিচার না হলে ব্যবসায়ীরা জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদানসহ কর্মসূচী ঘোষণা করতে বাধ্য হবে।

মানববন্ধন এবং এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: আশরাফ ছিদ্দিক বলেন, মূলত অবৈধ অটোরিকশা স্ট্যান্ড অপসারণ এবং সড়কের শৃঙ্খলা ফিরিয়ে আনতে ব্যবস্থা গ্রহণ করায় একটি স্বার্থবাদী মহল অপপ্রচার করছে। তাদের অভিযোগ ভিত্তিহীন ও বানোয়াট।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
আবদুল কুদ্দুছ মাখন ২ সেপ্টেম্বর, ২০২১, ৭:৫৫ পিএম says : 0
তদন্ত সাপেক্ষে দোসীদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা গ্রহনের দাবী জানাই। প্রতিবেদন অনুযায়ী সভ্য সমাজে এমন অসভ্য আচরণ কাম্য না।
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন