বুধবার, ১৮ মে ২০২২, ০৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

রামগতির চরপোড়াগাছায় চোখ ধাঁধানো স্থাপত্যের এক মসজিদ

রামগতি (লক্ষ্মীপুর) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৮ জানুয়ারি, ২০২২, ১২:৪০ পিএম

লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরপোড়াগাছা ইউনিয়নের শেখের কিল্লা নামক স্থানে তৈরা করা হয়েছে চোখ ধাঁধানো স্থাপত্যের সংমিশ্রণে বিস্ময়কর এক মসজিদ। জানালা নেই,ভেতরে আলো-রোদ-বৃষ্টি সবেই প্রবেশ করছে,এমনি কিছু চোখ ধাঁধানো স্থাপত্যের জটিল সংমিশ্রণ আর দৃষ্টিনন্দন চেহারায় নির্মাণ করা হয় মসজিদটি। নামকরণ করা হয় আস-সালাম জামে মসজিদ ও ইদগাহ সোসাইটি। বিস্ময়কর মসজিদটির অসংখ্য বৈশিষ্ট্যের অন্যতম হচ্ছে দোতলা মসজিদটিতে কোন জানালা নেই।
লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরপোড়াগাছা ইউনিয়নের শেখের কেল্লা এলাকায় স্থাপিত এ স্থাপনাটি বাংলাদেশে নির্মিত স্থাপত্যের মধ্যে অন্যতম একটি বিরল স্থাপনা। স্থানীয় রহিমা মমতাজ ও সাইফ-সালাহউদ্দিন ট্রাস্ট আল্লাহর সন্তুষ্টি লাভের জন্য দৃষ্টিনন্দন এ মসজিদটি তৈরি করেন। এটি আধুনিককালে লক্ষ্মীপুর জেলা ও বাংলাদেশে নির্মিত স্থাপত্যের মধ্যে অন্যতম দৃষ্টিনন্দন এক স্থাপনা,এমনটি দাবি করেন এখানে আগত দর্শনার্থীদের। প্রতিদিন প্রচুর সংখ্যক দর্শনার্থী এখানে জমায়েত হন। অন্যদিকে এ মসজিদকে ঘিরে তৈরি হওয়া শিক্ষা কমপ্লেক্সের মধ্যে আস-সালাম হাফেজিয়া মাদ্রাসা। এখানে হাফেজি ও ইংরেজি শিক্ষার সমন্বয়ে একটি আর্ন্তজাতিক মানের প্রতিষ্ঠানে পরিণত করা হচ্ছে। সরজমিনে গিয়ে স্থানীয়দের সঙ্গে কথা বলে এমন তথ্য জানা গেছে। নির্মাতাদের সূত্রে জানা যায়,স্থানীয়দের নামাজ ও জনহিতকর কাজের অংশ হিসেবেই লক্ষ্মীপুরের রহিমা মমতাজ ও সাইফ-সালাহউদ্দিন ট্রাস্ট নিজেদের জায়গায় ২০১৭ সালের ডিসেম্বর মাসে এ মসজিদ নির্মাণ শুরু করেন। বাংলাদেশি একটি স্থাপত্য প্রতিষ্ঠান আর্কি গ্রাউন্ড লিমিটেডের মূল স্থপতি নবী নেওয়াজ খান সমিন ও তার দল মসজিদটির নকশা তৈরি করে। বিরতিহীন কাজের পর ২০২১ সালের শেষের দিকে মসজিদটি মুসল্লিদের জন্য উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। প্রায় ৪ হাজার বর্গফুটের দোতলা এ মসজিদের নির্মাণ ব্যয়ভার বহন করেছে রহিমা মমতাজ ও সাইফ-সালাহউদ্দিন ট্রাস্ট। অনন্য ডিজাইন আর নজরকাড়া সৌন্দর্যের এ মসজিদটি বাংলাদেশে আধুনিক নির্মাণ শৈলীর এক ব্যতিক্রমী নজির। এখন প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বহু দর্শনার্থী ছুটে আসছেন বিস্ময়কর এ মসজিদটি দেখার জন্য।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন