বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

ভিসির বক্তব্যে শিক্ষার্থীদের প্রতিক্রিয়া

শাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০২২, ৭:৫২ পিএম

বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদের ‘আমরা অন্যায়ের বিরুদ্ধে মাথা নত করি নাই ভবিষ্যতেও করবো না। আমরা ন্যায় ও সত্যের পথে থাকবো। আপনারা দেখতে পেয়েছেন সত্য এবং ন্যায় আজকে বিজয়ী হয়েছে। সত্য এবং ন্যায় আজকে টিকে আছে, মিথ্যা আজকে পরাভূত হয়েছে।’ এমন বক্তব্যের প্রেক্ষিতে প্রতিক্রিয়া জানিয়েছেন ভিসির পতনের দাবি আন্দোলনের শিক্ষার্থীরা। গত ১৬ জানুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পুলিশি হামলার ঘটনার ১ মাস পর বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যা ৭টায় বিশ্ববিদ্যালয় দিবসে ভিসি প্রফেসর ফরিদ উদ্দিন আহমেদের বক্তব্যকে মনগড়া ও নির্লজ্জ মিথ্যাচার বলে উল্লেখ করে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছেন তারা ।

প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে শিক্ষার্থীরা বলেন, ভয়াল ১৬ জানুয়ারির ১ মাস পূর্তিতে আমরা শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা বলতে চাই, আমরা কিছুই ভুলিনি। ‘আমাদের সমস্ত দাবির ব্যাপারে অতি শীঘ্রই যথাযথ পদক্ষেপ নেয়া হবে’ শিক্ষামন্ত্রীর এমন ঘোষণায় আমরা আপাতত আন্দোলন প্রত্যাহার করেছি। কিন্তু আমাদের শরীরে লাঠি, বুলেট, বোমার সকল আঘাত, জখম, ঝরা রক্ত আমাদের মনে অক্ষয় শক্তির যোগান দিয়ে অঙ্গার হয়ে জ্বলছে। ফরিদদের পতন না হলে এই অঙ্গার অপ্রতিরোধ্য দাবানলে পরিণত হবে।

শিক্ষার্থীরা বলেন, শিক্ষার্থীদের সবগুলো দাবীর ব্যাপারেই যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে এমন সুস্পষ্ট আশ্বাসে শিক্ষার্থীরা আপাতত আন্দোলন স্থগিত করেছে বলে কিছুদিন আগেই শিক্ষার্থীদের দ্বারা ক্যাম্পাসে অবাঞ্ছিত ঘোষিত উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদ যদি ভেবে থাকেন যে তিনি যা ইচ্ছা তাই বলতে পারবেন তবে বিরাট ভুল করছেন। সমস্ত বাধা-বিপত্তি, ভয়ডর উপেক্ষা করে শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা প্রায় ১ মাসব্যাপী অন্যায়ের বিরুদ্ধে যে অভূতপূর্ব আন্দোলন চালিয়েছে তার যৌক্তিকতা, ন্যায্যতা ও নৈতিক ভিত্তি কিছু দালাল ও চাটুকার ব্যতিত সারা দেশে সর্বজনস্বীকৃত। ফরিদ উদ্দিন আহমেদ তার মিথ্যাচারের ধারাবাহিকতা অব্যাহত রেখেছেন। ফরিদ উদ্দিন আহমেদকে আমরা বলতে চাই, শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের সাথে সাথে গোটা জাতির কাছে সত্য হচ্ছে নিরস্ত্র শিক্ষার্থীদের উপর বিনা উস্কানিতে আপনার নির্দেশে পুলিশের নিষ্ঠুর হামলা, অসংখ্য আহত শিক্ষার্থীর আর্তনাদ, আমাদের সতীর্থ সজল কুন্ডুর শরীরের ৮০ টিরও বেশি স্প্লিন্টার, ২৮ টি ছেলেমেয়ের মরণপণ অনশন। আপনার তো পদত্যাগ করার সৎসাহসও নেই। তাই এখন অবশ্যম্ভাবী পদচ্যুতির আগে যত্রতত্র আপনার স্বভাবসুলভ মিথ্যার পসরা সাজিয়ে বসবেন না। এসময় ১৬ই জানুয়ারির পুলিশী হামলার ১ মাস পূর্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্যকে অবিলম্বে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের অপসারণ নিশ্চিত করার জন্য আবেদন জানান তারা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps