বুধবার, ০৬ জুলাই ২০২২, ২২ আষাঢ় ১৪২৯, ০৬ যিলহজ ১৪৪৩ হিজরী

খেলাধুলা

১০ কোটির রাসেলকে হারালো অর্ধ কোটির মুক্তিযোদ্ধা!

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১২ মার্চ, ২০২২, ৮:৩৫ পিএম

ঘরোয়া ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) বড় বাজেটের দলগুলোর মধ্যে অন্যতম শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। শোনা যাচ্ছে এবারের মৌসুমে তারা প্রায় ১০ কোটি টাকা খরচায় দল গড়েছে। সেই তুলনায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র একেবারেই সাদামাটা। বিশ্বস্ত সুত্র জানায়, চলতি মৌসুমে দল গড়তে মুক্তিযোদ্ধা খরচ করেছে ৬০ থেকে ৭০ লাখ টাকা। সেই অর্ধ কোটির মুক্তিযোদ্ধাই বড় ব্যবধানে হারালো ১০ কোটির দল শেখ রাসেলকে। শনিবার বিকালে রাজধানীর বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় নিজেদের অষ্টম ম্যাচে মুক্তিযোদ্ধা ৩-০ গোলে হারায় শেখ রাসেলকে। বিজয়ী দলের হয়ে একটি করে গোল করেন যথাক্রমে জাপানী মিডফিল্ডার সোমা ওতানি, স্থানীয় মিডফিল্ডার দিদারুল আলম ও ফরোয়ার্ড আমিনুর রহমান সজিব।

এবারের লিগে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও চট্টগ্রাম আবাহনীর সঙ্গে ড্র। ঢাকা আবাহনী লিমিটেড, শেখ জামাল ধানমন্ডি, বসুন্ধরা কিংস, উত্তর বারিধারা ক্লাবের পর মুক্তিযোদ্ধার কাছে হার। এই হল চলমান বিপিএলে বড় বাজেটের দল শেখ রাসেলর চিত্র। জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানা, তারকা ফুটবলার সাদ উদ্দিন সহ অনেক প্রতিষ্ঠিত ফুটবলার রয়েছেন রাসেলে। তাদের কোচও স্থানীয়দের মধ্যে অন্যতম সেরা সাইফুল বারী টিটু। যিনি এক সময় জাতীয় দলের কোচ ছিলেন। তারকা সমৃদ্ধ দল হয়ে এবং হাই প্রোফাইল কোচ নিয়েও লিগে ফলাফল পাচ্ছে না শেখ রাসেল। তাই তো ক্লাব ম্যানেজমেন্ট, খেলোয়াড় ও কোচদের সমালোচনা করছেন ফুটবলবোদ্ধারা। হারের বৃত্ত থেকে কিছুতেই বেরিয়ে আসতে পারছে না দলটি। শিরোপা জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে বর্তমানে বেহাল অবস্থা রাসেলের। শনিবার নিজেদের হোম ভেন্যু বসুন্ধরা কিংস অ্যারেনায় শেখ রাসেলের খেলোয়াড়দের মধ্যে জয়ের তাড়না কমই লক্ষ্য করা গেছে। বরং মুক্তিযোদ্ধা সংসদ উজ্জীবিত হয়ে খেলেছে পুরো ম্যাচে।

ম্যাচের শুরু থেকেই গোল পেতে মরিয়া ছিল মুক্তিযোদ্ধা। সাফল্যও তারা তুলে নেয় ২২ মিনিটে। এসময় জাপানি মিডফিল্ডার সোমা ওতানির শট গোলরক্ষক আশরাফুল ইসলাম রানার গ্লাভস ছুঁয়ে জালে জড়ালে এগিয়ে যায় মুক্তিযোদ্ধা (১-০)। ৫৪ মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ করে বিজয়ীরা। জাপানী ফরোয়ার্ড তেতসুয়াকি মিসুয়ার ফ্রি কিক গোলরক্ষক রানা ফিস্ট করলেও পুরোপুরি বিপদমুক্ত করতে পারেননি, ছুটে গিয়ে ফিরতি শটে দলের পক্ষে দ্বিতীয় গোল করেন দিদারুল আলম (২-০)। আক্রমণের ধারা অব্যাহত রেখে ম্যাচের ৮১ মিনিটে সজিব গোল করলে এক সময়ের ট্রেবলজয়ীদের বড় হার নিশ্চিত হয় (৩-০)। ম্যাচ জিতে আট খেলায় দুই জয় এবং ছয়টি করে হার ও ড্রতে ৬ পয়েন্ট পেয়ে তালিকার দশম স্থানে উঠে এলো মুক্তিযোদ্ধা। সমান ম্যাচে এক জয়, দুই ড্র ও পাঁচ হারে মাত্র ৫ পয়েন্ট নিয়ে মুক্তিযোদ্ধার পরের অবস্থানে জায়গা পেল শেখ রাসেল।

এদিন গোপালগঞ্জের শেখ ফজলুল হক মনি স্টেডিয়ামে লিগের আরেক ম্যাচে গোলশূন্য ড্র করে ঐতিহ্যবাহী মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে রুখে দিয়েছে অপেক্ষাকৃত দূর্বল উত্তর বারিধারা ক্লাব। আট ম্যাচে দু’টি করে জয় ও হার এবং চার ড্রতে ১০ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানেই রইল মোহামেডান। সমান ম্যাচে দু’টি করে জয় ও ড্র এবং চার হারে ৮ পয়েন্ট পেয়ে অষ্টম স্থানে বারিধারা।

এদিকে সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে শনিবারের তৃতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ পুলিশ এফসি ২-১ গোলে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটিকে হারিয়ে তালিকায় চতুর্থ স্থানে উঠে এলো। আট ম্যাচে চার জয় এবং দু’টি করে ড্র ও হারে পুলিশের সংগ্রহ ১৪ পয়েন্ট। সমান ম্যাচে দুই জয়, এক ড্র ও পাঁচ হারে ৭ পয়েন্ট পাওয়া রহমতগঞ্জের অবস্থান নয়ে।

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

গত ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন

Google Apps