শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ০৫ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

খেলাধুলা

বেলজিয়াম-মরক্কো জম্পেশ লড়াইয়ের অপেক্ষা

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৭ নভেম্বর, ২০২২, ১২:২১ এএম

কাতার বিশ্বকাপের ‘এফ’ গ্রুপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে কানাডাকে ১-০ গোলে হারিয়ে শেষ ষোল’র পথে অনেকটাই এগিয়ে আছে বেলজিয়াম। দ্বিতীয় ম্যাচে মরক্কোর বিপক্ষে জয় পেয়ে আজই নক আউট পর্ব নিশ্চিত করতে চায় তারা। এদিকে ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপের রানার্সআপ ক্রোয়েশিয়াকে প্রথম ম্যাচে রুখে দিয়ে আত্মবিশ্বাসী মরক্কোর লক্ষ্য বেলজিয়ামের বিপক্ষে ভালো খেলে অন্তত এক পয়েন্ট নিয়ে মাঠ ছাড়া। দোহার আল থুমামা স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৭টায় শুরু হবে বেলজিয়াম-মরক্কো ম্যাচটি।
গড়ে প্রতি ম্যাচে তিনটি করে গোল করে অনেকটা সহজ বাছাই পর্ব টপকে আসা বেলজিয়াম বিশ্বকাপের শুরুটাও রাঙিয়েছে জয় দিয়েই। এখন তাদের সামনে এমন এক প্রতিপক্ষ যারা গত চার দশক ধরে বিশ্বকাপের বাইরে ছিল। কানাডার বিপক্ষে আগের ম্যাচের শুরুতে পেনাল্টি রুখে দিয়ে থিবো কোর্তোয়া আরেকবার বেলজিয়ানদের রক্ষা করেছিলেন। আর এতেই উজ্জীতি হয়ে ম্যাচের ৪৪ মিনিটে মিশি বাটশুয়াইয়ের গোলে শেষ পর্যন্ত জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে রবার্তো মার্টিনেজের দল। ইনজুরিতে ছিটকে পড়া রোমেলু লুকাকুর জায়গায় ফেনারবাচের এই স্ট্রাইকারের উপরই আস্থা রেখেছেন বেলজিয়াম কোচ। কোচের আস্থার প্রতিদান ঠিকই দিয়েছেন বাটশুয়াই। একইদিন প্রথম ম্যাচে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে মরক্কো গোলশূন্য ড্র করায় বেলজিয়ামের সামনে সুযোগ ছিল নিজেদের এগিয়ে নেয়ার। প্রাথমিক কাজটুকু সেরে নেয়ার পর এখন আরও বেশী চ্যালেঞ্জিং প্রতিপক্ষ তাদের সামনে। বেলজিয়ামকে এগিয়ে নেয়ার দায়িত্ব এখন অনেকটাই বাটশুয়াইয়ের উপর। ১০২ আন্তর্জাতিক ম্যাচে ৬৮ গোল করে দেশটির সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা লুকাকুর স্থানে নিজেকে প্রমাণ করাই এখন বাটশুয়াইয়ের মূল দায়িত্ব। সর্বশেষ রাশিয়া বিশ্বকাপে তৃতীয় স্থান পাওয়া বেলজিয়াম এবার সেই সাফল্যকে ছাড়িয়ে যেতে মুখিয়ে আছে। এর আগে ১৯৯৪ যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বকাপে একমাত্র দেখায় মরক্কোকে ১-০ ব্যবধানে হারিয়েছিল বেলজিয়াম। এনিয়ে বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বের শেষ আটটি ম্যাচের সবকটিতেই জিতেছে তারা।
চলতি সপ্তাহেই বেলজিয়ামের তারকা স্ট্রাইকার লুকাকুকে দলে পাবার আশা করছেন কোচ মার্টিনেজ। আগস্টের পর থেকে মাঠের বাইরে কাটানো ২৯ বছর বয়সী লুকাকু মাঠে ফিরে কতটা স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করবেন তা নিয়েও রয়েছে শঙ্কা। প্রথম ম্যাচের ফর্মেশনই ধরে রাখতে চান মার্টিনেজ। সেরা একাদশে থমাস মুনিয়ার ও আমাডু ওনানাকেই উইং ব্যাক ও সেন্ট্রাল মিডফিল্ডার হিসেবে রাখা হবে বলে জানা গেছে।
অন্যদিকে সাম্প্রতিক সময়ে নিজেদের প্রমাণে ব্যস্ত ছিল মরক্কো। তাই তো প্রথম ম্যাচে ক্রোয়েশিয়াকে রুখে দিয়ে অনেকটা ফুরফুরে মেজাজে থেকেই আজ মাঠে নামবে তারা। আফ্রিকান দেশটি এ পর্যন্ত খেলা পাঁচটি বিশ্বকাপের কোনটিতেই গ্রুপ পর্বের গণ্ডি পেরুতে পারেনি। চার বছর আগে কঠিন গ্রুপে থেকে মাত্র ১ পয়েন্ট পেয়ে বিশ্বকাপ শেষ করেছিল মরক্কো। দলের বর্তমান কোচ ওয়ালিদ রেগ্রাগুই ইতোমধ্যে স্বীকার করেছেন যে, এবারের আসরে তার দলের নক আউট পর্বে যাওয়াটা অনেকটা অবাস্তব। এক্ষেত্রে গ্রুপের ইউরোপীয়ান প্রতিপক্ষদেরই এগিয়ে রেখেছেন তিনি। তবে ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে প্রতাশ্যার চেয়ে ভাল ফল করায় মরক্কোকে নিয়ে অনেকেই আশাবাদী হয়ে উঠেছেন। কিন্তু এ পর্যন্ত বিশ্বকাপে খেলা ১৭ ম্যাচের ৯ টিতেই মরক্কো কোন গোল করতে পারেনি। গত বছর আফ্রিকান নেশন্স কাপের শেষ আটে মিশরের বিপক্ষে হারের পর মরক্কোর সাবেক কোচ ভাহিদ হাভিহোডিচ দলের তারকা খেলোয়াড় হাকিম জিয়েচ ও নুসাইর মাজরাউইদের বাদ দিয়েছিলেন। কিন্তু রেগ্রাগুই দায়িত্বে আসার পর এ দুই খেলোয়াড়কে ফের জাতীয় দলে ফিরিয়ে আনেন। কাতারে ভাল একটি শুরুর পর আজকের ম্যাচেও অন্তত এক পয়েন্টের লক্ষ্য নিয়েই মাঠে নামবে মরক্কো। ১ ডিসেম্বর কানাডার বিপক্ষে শেষ ম্যাচের আগে যাতে কিছুটা হলেও সুবিধাজনক স্থানে থাকা যায়-এটাই এখন মূল চ্যালেঞ্জ আফ্রিকান দেশটির। উত্তর আমেরিকা থেকে সরাসরি কাতারে উড়ে আসা হাজারো মরোক্কান সমর্থকদের তারা হতাশ করতে চায়না। মরক্কোর বড় একটি কমিউনিটি মধ্যপ্রাচ্যেও বসবাস করে। সব মিলিয়ে সমর্থনটাও বেশ জোড়ালো আশা করা হচ্ছে। মরক্কোন কোচের লক্ষ্য প্রথম ম্যাচের ফর্মেশনেই বেলজিয়ামের বিপক্ষে দলকে খেলানো।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন