শনিবার, ২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ০৫ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

খেলাধুলা

টিকে থাকার মিশনে পর্তুগালের মুখোমুখি কোরিয়া

জাহেদ খোকন

| প্রকাশের সময় : ২ ডিসেম্বর, ২০২২, ১২:১৪ এএম

গ্রুপের দুই ম্যাচ জিতে ইতোমধ্যে বিশ্বকাপের নক আউট পর্ব নিশ্চিত করেছে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর্তুগাল। দক্ষিণ কোরিয়ার সামনে এখানো সুযোগ আছে গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে শেষ ষোল’র টিকিট কাটার। এক্ষেত্রে পর্তুগালকে হারাতে হবে তাদের। এজন্য অবশ্য আজ একই সময়ে আল ওয়াকরায় গ্রুপের আরেক ম্যাচে পয়েন্ট টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে থাকা ঘানাকে হারতে হবে উরুগুয়ের কাছে। অন্যদিকে গ্রুপ সেরা হয়ে নক আউট পর্বে যেতে ফার্নান্দো সান্তোসের দলের প্রয়োজন এক পয়েন্ট। এমন সমীকরণ সামনে নিয়ে কাতার বিশ্বকাপে টিকে থাকার মিশনে ‘এইচ’ গ্রুপের শেষ ম্যাচে আজ শক্তিশালী পর্তুগালের মুখোমুখি হচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়া। দোহার আল রাইয়ানের এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় শুরু হবে ম্যাচটি।
উরুগুয়ের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে এবার বিশ্বকাপ যাত্র শুরু হয় দক্ষিণ কোরিয়ার। এরপর অবশ্য দ্বিতীয় ম্যাচে উজ্জীবিত ফুটবল উপহার দিয়েও হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর ঘানার বিপক্ষে ৩-২ গোলে হেরে যায় তারা। কোরিয়ানদের হারিয়েই গ্রুপের দ্বিতীয় দল হিসেবে ঘানার সামনে এখন পরের রাউন্ডে যাবার হাতছানি। দুই ম্যাচে ১ পয়েন্ট পেয়ে দক্ষিণ কোরিয়া রয়েছে তৃতীয় স্থানে। কিন্তু এখনো তাদের সামনে নক আউট পর্বে খেলার সুযোগ রয়েছে। এক্ষেত্রে যেকোন মূল্যে পর্তুগিজদের বিপক্ষে জয় নিশ্চিত করতে হবে কোরিয়ানদের। তারা যদি সান্তোসের দলকে হারায় এবং উরুগুয়ে ঘানাকে হারায় তাহলে গোল ব্যবধানে যে দল এগিয়ে থাকবে তারাই খেলবে পরের রাউন্ডে খেলবে। এশিয়ান জায়ান্ট দক্ষিণ কোরিয়া ২০১০ বিশ্বকাপে সর্বশেষ নক আউট পর্বে খেলেছিল। শেষ দুটি আসরেই তারা গ্রুপ পর্ব বিদায় নিতে হয়েছে তাদের।
এই মুহূর্তে প্রতিপক্ষের দিকে না তাকিয়ে নিজেদের স্বাভাবিক খেলার দিকেই বেশি মনোযোগ দিচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়া। ঘানার বিপক্ষে যেমন অল আউট ফুটবল খেলেছে তারা তাতে পর্তুগালকে বাড়তি সতর্কতা নিতেই হচ্ছে। পর্তুগাল যেহেতু নক আউট পর্বে চলে গেছে তাই নিয়মরক্ষার ম্যাচটিতে তাদের মধ্যে কিছুটা নির্লিপ্ততা আসাটাই স্বাভাবিক। যদিও সান্তোস এমন আশঙ্কাকে উড়িয়ে দিয়েছেন, আর এই সুযোগটাই কাজে লাগাতে চায় বেনটোর শিষ্যরা। উরুর ইনজুরির কারণে ফরোয়ার্ড হুয়াং হি চানকে এখনো বিশ্বকাপের কোন ম্যাচে নামাতে পারেনি দক্ষিণ কোরিয়া। আজকের ম্যাচেও এই ফরোয়ার্ডের খেলা নিয়ে শঙ্কা রয়েছে। বেনটোর দলের হয়ে আরো একবার সেরা একাদশের আক্রমণে দেখা যাবে তারকা স্ট্রাইকার সন হেয়াং মিনকে। জাতীয় দলের হয়ে ১০৭তম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে পর্তুগালের বিপক্ষে মাঠে নামবেন ৩০ বছর বয়সী সন। রক্ষণভাগ ও মধ্যমাঠের মাঝামাঝিতে থাকবেন নাপোলির কিম মিন জা। ঘানার বিপক্ষে আগের ম্যাচে জোড়া গোলদাতা চু গুয়ে সুং নিশ্চিতভাবে নিজের পজিশন ধরে রাখবেন।
এদিকে ঘানার বিপক্ষে ৩-২ গোলের জয় দিয়ে এবার বিশ্বকাপ শুরু করে পর্তুগাল। ওই ম্যাচে গোল করে টানা পাঁচ বিশ্বকাপে গোল করার রেকর্ড গড়েন পর্তুগিজ সুপারস্টার ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। দ্বিতীয় ম্যাচে উরুগুয়েকে দাঁড়াতেই দেয়নি পর্তুগাল। না দিয়ে ব্রুনো ফার্নান্দেসের জোড়া গোলে নক আউট পর্বের টিকিট কাটে তারা। শেষ ম্যাচের আগে ঘানার চেয়ে ৩ পয়েন্ট এগিয়ে থেকে টেবিলের শীর্ষ দল হিসেবেই দক্ষিণ কোরিয়ার মুখোমুখি হচ্ছেন রোনালদোরা। ১৯৬৬ বিশ্বকাপে তৃতীয় ও ২০০৬ সালে চতুর্থ হয়েছিল পর্তুগাল। কিন্তু এরপর থেকে শেষ ষোল’র গণ্ডি পেরুতে পারেনি তারা। শেষ তিনটি বিশ্বকাপের দুটিতেই গ্রুপ পর্বে তাদের বিশ্বকাপ শেষ হয়েছিল। এবার অবশ্য পর্তুগাল ফেভারিট হিসেবে কাতারে খেলতে আসেনি। কিন্তু প্রথম দুই ম্যাচে দুর্দান্ত পারফরম্যান্স করে এখন তারা শক্ত প্রতিপক্ষ হিসেবে নিজেদের প্রমাণ করেছে।
উরুগুয়ের বিপক্ষে ম্যাচের প্রথমার্ধের শেষভাগে বদলী বেঞ্চে জায়গা হয়েছিল পর্তুগিজ ডিফেন্ডার নুনো মেন্ডেসের। আজও তার সেরা একাদশে জায়গা পাওয়া নিয়ে যথেষ্ঠ শঙ্কা রয়েছে। এছাড়া পাঁজরের হাড়ে চিড় ধরায় মিডফিল্ডার ডানিলো পেরেইরাও দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে ম্যাচ থেকে ছিটকে গেছেন। ওটাভিও ইনজুরিতে রয়েছেন। লেফট ব্যাকে মেন্ডেসের স্থানে রাফায়েল গুয়েরেইরো খেলবেন। অদল-বদল যাই হোক না কেন ফার্নান্দো সান্তোসের দলের লক্ষ্য শতভাগ জয় নিয়েই নক আউট পর্বে যাওয়া। এক্ষেত্রে আজ তারা কতটা সফলতা পায় সেটা দেখার অপেক্ষায় আছেন ফুটবলপ্রেমীরা।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন