সোমবার, ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯, ১৪ রজব ১৪৪৪ হিজিরী

খেলাধুলা

ঢাবিতে উন্মাদনার এক রাত

অনলাইন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৬ ডিসেম্বর, ২০২২, ১০:১৪ এএম

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবলে ব্রাজিল-দক্ষিণ কোরিয়ার মধ্যকার দ্বিতীয় রাউন্ডের ম্যাচ উপভোগে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের বটতলা-জাকসু ভবন সংলগ্ন স্থানে, ঢাকা কলেজ মাঠ এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোর মাঠে জড়ো হয়েছেন শত শত ব্রাজিল সমর্থক। আনন্দ-উল্লাস, নেচে গেয়ে ম্যাচটি উপভোগ করছেন তারা।
ম্যাচের প্রথমার্ধে দ. কোরিয়ার বিরুদ্ধে চারটি গোল দেয় পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। এরপর বাঁধভাঙা উল্লাসে ফেটে পড়েন দলটির সমর্থকরা।
মধ্যরাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মহসিন হলের মাঠে দেখা যায় পুরো মাঠ জুড়েই ভক্ত সমর্থকদের উল্লাস ও চিৎকারে জমজমাট পরিবেশ। কেউ নিয়ে এসেছেন ব্রাজিলের পতাকা, কেউ গায়ে জড়িয়েছেন ব্রাজিলের জার্সি। ব্রাজিলের প্রথম গোলের পর পুরো মাঠ জুড়ে সমর্থকদের উচ্ছ্বাস আর ভুভুজেলার শব্দে তৈরি হয় উৎসবমুখর পরিবেশের।
এদিকে বিশ্বকাপ শুরু থেকেই বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোতেও বইছে উৎসবের আমেজ। ক্যাম্পাসের বিভিন্ন হল সেজেছে প্রিয় দলের পতাকায়। বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হলগুলোতে শোভা পাচ্ছে আর্জেন্টিনার আকাশী-সাদা, ব্রাজিলের হলুদ-সবুজ পতাকা।
জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের জাকসু সংলগ্ন স্থানে এবং বটতলায় বড় পর্দায় খেলা দেখার আয়োজন করা হয়েছে। সেখানে হাজারো সমর্থক বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো উপভোগ করছেন।
ব্রাজিলের ম্যাচটি উপভোগ করতে আসা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ব্রাজিল সমর্থক মিজানুর রহমান বলেন, ‘আমরা ব্রাজিলের শৈল্পিক খেলা দেখতে এসেছি। আজকের খেলায় ব্রাজিল বড় ব্যবধানে জিতে কোয়ার্টার ফাইনালে যাবে আশাবাদী। ব্রাজিল অপ্রতিরোধ্য, ব্রাজিলের জয়রথ থামানোর শক্তি কারও নেই। ব্রাজিল থামবে একমাত্র এবারের বিশ্বকাপ জয়ের মধ্যে দিয়ে।'
আরেক সমর্থক আনিকা সুবাহ্ বলেন, ‘ব্রাজিল হেক্সা মিশন পূরণের লক্ষ্য নিয়ে এগিয়ে যাচ্ছে। তারই স্বাক্ষী হতে উদগ্রীব আমরা। ব্রাজিল ভালো খেলবে এবং তার কোটি সমর্থকের মনের আশা পূরণ করবে।’
ব্রাজিল-দক্ষিণ কোরিয়া ম্যাচ উপভোগ করতে রাজধানীর ঢাকা কলেজের মাঠে উপস্থিত হন কয়েকশ মানুষ। ইনজুরি কাটিয়ে দলে নেইমার ফেরায় উল্লাস প্রকাশ করেন তারা।
ঢাকা কলেজ মাঠে খেলা দেখতে আসা ব্রাজিল সমর্থক তারেক আজিজ নেইমারের ফেরা সম্পর্কে বলেন, ‘ব্রাজিল জিতবে তাতে কোনো সন্দেহ নেই। ইতিহাস পর্যালোচনা করে বলা যায়, ব্রাজিলের বিপক্ষে দক্ষিণ কোরিয়ার পরিসংখ্যান কখনোই ভালো ছিল না। এখন পর্যন্ত দুই দলের মধ্যে হওয়া সাতটি ম্যাচের মধ্যে ছয়টিতেই হেরেছে তারা। তারপরও সহজভাবে অবশ্যই দেখার কোন সুযোগ নেই। বড় কথা হলো নেইমার ফিরে আসায় সবাই আত্মবিশ্বাসী হয়ে খেলবে ফলে জেতার সম্ভাবনা বহুগুণে বেড়েছে।’
আসাদুল্লাহ গালিব নামের আরেক সমর্থক বলেন, ‘আজ ব্রাজিল তাদের পূর্ণ শক্তির দল নিয়ে মাঠে নামবে। নেইমার ইনজুরি থেকে ফিরে এসেছে এটাই সব থেকে বড় ব্যাপার। নেইমারকে পেয়ে পুরো দল উজ্জীবিত। জয় নিয়েই মাঠ ছাড়বে তিতে বাহিনী।’
প্রসঙ্গত, এবার কাতার বিশ্বকাপের প্রথম পর্বের ম্যাচেই ঘটে বড় অঘটন। সার্বিয়ার বিপক্ষে ফাউলের শিকার হয়ে ইনজুরিতে পড়ে হাসপাতালে যেতে হয় নেইমারকে। সেখানে পর্যবেক্ষণ শেষে জানানো হয়েছিলো, শুধু গ্রুপ পর্বই নয় বরং পুরো বিশ্বকাপ থেকেই ছিটকে যেতে পারেন নেইমার। কিন্তু তিনি রাউন্ড ষোলর ম্যাচেই ফিরে এসেছেন।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন