ঢাকা, মঙ্গলবার, ০২ জুন ২০২০, ১৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০৯ শাওয়াল ১৪৪১ হিজরী

খেলাধুলা

আইপিএলের কারণে এশিয়া কাপ পেছালে মানবে না পাকিস্তান

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ এপ্রিল, ২০২০, ১২:০৩ এএম

করোনাভাইরাসের কারণে পৃথিবীর সব খেলাই বন্ধ। সব ধরনের ক্রিকেট বন্ধ হয়ে গেছে মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময় থেকেই। ঘরোয়া ক্রিকেটও বন্ধ সব টেস্ট খেলুড়ে দেশেরই। পাকিস্তানের ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট পিএসএল বন্ধ হয়ে গেছে একেবারে চূড়ান্ত শিরোপা নির্ধারণের আগেই। আইপিএল তো মাঠেই গড়াতে পারেনি। প্রথমে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত এটি স্থগিত হলেও করোনা-সংক্রমণের যে অবস্থা, তাতে এই আয়োজন অনিশ্চয়তার মধ্যেই পড়ে গেছে। তবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই) খুব করেই চাইছে পরিস্থিতি ভালো হলে এটি সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের দিকে আয়োজন করতে। আইপিএল এবার না হলে বিপুল অঙ্কের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হবে বিসিসিআইকে।

সে কারণেই বিসিসিআই এখন মরিয়া আইপিএল নিয়ে। এখনো সেভাবে আলোচনা না হলেও সেপ্টেম্বর-অক্টোবরে আয়োজনের কথা শোনা যাচ্ছে।

ঐ সময়টাতেই আবার এশিয়া কাপ আয়োজনের কথা পাকিস্তানের। দুটি আসর মুখোমুখি হওয়াতেই শঙ্কা যেগেছে এশিয়া কাপ পিছিয়ে যাবার। যদি আইপিএল আয়োজনের জন্য এশিয়া কাপ আয়োজন পেছাতে হয়, তাহলে তার প্রতিবাদ করবে তারা। পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) প্রধান নির্বাহী ওয়াসিম খান কথা বলেছেন এটি নিয়েই। সেপ্টেম্বরে যেহেতু পাকিস্তানের এশিয়া কাপ আয়োজনের কথা, তাই সে সময় আইপিএল আয়োজন মানবে না বলেই জানিয়েছেন তিনি, ‘আমাদের অবস্থান খুব পরিষ্কার। যদি কোনো কারণে সেপ্টেম্বরে এশিয়া কাপ হতে না পারে, সেটি অবশ্যই করোনাভাইরাস ইস্যু। আর আইপিএলের কারণে যদি এশিয়া কাপ পিছিয়ে দেওয়া হয়, সেটি পাকিস্তান মেনে নেবে না।’

নৈতিক দিক দিয়েও পাকিস্তান এটিকে সঠিক মনে করে না। ওয়াসিম বলেন, ‘আমরা শুনছি সেপ্টেম্বরের এশিয়া কাপ আইপিএল আয়োজনের স্বার্থে নভেম্বর-ডিসেম্বরে পিছিয়ে নেওয়া হতে পারে। কিন্তু সেটি সম্ভব নয়। যদি সেটি করাও হয়, তাহলে তা হবে একটি দেশের স্বার্থে। আমরা সেটি কিছুতেই মেনে নেব না।’
গতপরশু হওয়া আইসিসির ভিডিও কনফারেন্সে বিসিসিআইয়ের প্রতিনিধি আইপিএলে সংক্রান্ত কোনো প্রস্তাব উত্থাপন করেননি বলেও দাবি করেন পিসিবি নির্বাহী।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন