ঢাকা শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০, ১৪ কার্তিক ১৪২৭, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২ হিজরী

খেলাধুলা

বিপিএলের ১৩ ক্লাবের ভোটার কারা?

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৮ জুন, ২০২০, ৬:৫২ পিএম

প্রাণঘাতি করোনাভাইরাস আতঙ্কে স্থগিত আছে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের (বাফুফে) বহুল কাঙ্খিত নির্বাচন। বাফুফে কার্যনির্বাহী কমিটির এই নির্বাচনে ভোট হওয়ার কথা ছিল গত ২০ এপ্রিল। কিন্তু করোনা দুর্যোগের কারণে বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ফিফার নির্দেশনায় এই নির্বাচন স্থগিত করে এশিয়ান ফুটবল কনফেডারেশন (এএফসি)। করোনা পরিস্থিতির উন্নতি ঘটলে এএফসির নির্দেশনায় নির্বাচনের নতুন দিনক্ষণ নির্ধারণ করবে বাফুফের বর্তমান কমিটি। তবে আপাতত বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) ও নির্বাচনী কার্যক্রমে কারা অংশ নিতে পারবেন তাদের তালিকা তৈরি করে রাখছে বাফুফে।

বাফুফের এজিএম এবং নির্বাচনে ভোটার ও নন-ভোটার- এ দুই ধরনের কাউন্সিলর থাকেন। বাফুফে নির্বাচনে এবার ১৪৩ জন কাউন্সিলর ভোটা দিতে পারবেন। বাকিরা শুধু এজিএমে অংশ নেবেন। তালিকা অনুযায়ী ভোট দেবেন ৬৪ জেলা, ৮ বিভাগের ৭২ জন, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল), বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ (বিসিএল) ও প্রথম বিভাগ লিগের ১৩ জন করে মোট ৩৯ জন, দ্বিতীয় বিভাগ লিগের ১০ জন, তৃতীয় বিভাগ লিগের ৮ ক্লাব, শিক্ষা বোর্ড ৫, বিশ্ববিদ্যালয় ৬, মহিলা ক্রীড়া সংস্থা ১, রেফারিজ অ্যাসোসিয়েশন ১ ও কোচেস অ্যাসোসিয়েশন ১ জন করে ভোটার। এর বাইরে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ, বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বাংলাদেশ নৌবাহিনী ও বাংলাদেশ বিমান বাহিনী থেকে একজন করে নন-ভোটার কাউন্সিলর অংশ নেবেন বাফুফের এজিএমে। ৭ জুন ছিল বাফুফের সদস্য প্রতিষ্ঠানগুলোর কাউন্সিলরদের নাম পাঠানোর শেষ দিন। এদিন কাউন্সিলররা বাফুফে দফতরে তাদের তালিকা জমা দিয়েছেন। জমা হওয়া কাউন্সিলর তালিকা পর্যবেক্ষণের জন্য তিন সদস্যের একটি কমিটি আছে। বাফুফের সিনিয়র সহ-সভাপতি আবদুস সালাম মুর্শেদী এবং নির্বাহী কমিটির দুই বর্ষীয়ান সদস্য হারুনুর রশিদ ও আবদুর রহিমকে নিয়ে গঠিত এ কমিটি কাউন্সিলরের তালিকা দেখেশুনে চূড়ান্ত করবে। অবশ্য এই কমিটি নিয়ে আপত্তি তুলেছেন বাফুফের অন্যতম সহ-সভাপতি এবং সভাপতি পদে করার ঘোষণা দেয়া বাদল রায়। তিনি কিছু অভিযোগও তুলেছেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগের বিরুদ্ধে। লিখিতভাবে এ অভিযোগ ৭ জুন বাফুফে ভবনে জমা দিয়েছেন বাদল। তবে বাদল রায়ের অভিযোগগুলো অস্বীকার করে সোহাগ সোমবার জানান, বাফুফে সভাপতি কাজী সালাউদ্দিনের নির্দেশক্রমে অভিযোগপত্রটি পাঠানো হচ্ছে তিন সদস্যের পর্যবেক্ষণ কমিটির কাছে। সোহাগ বলেন,‘গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে বাফুফে কোনো কাজ করেনি। কমিটি নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলা হয়েছে তারা নিরপেক্ষ নন। আগেও এভাবে কমিটি ছিল। আর এই তিন সদস্যের মধ্যে কে নির্বাচন করবেন, কে করবেন না সেটা তো এখনই বলা যাবে না। নির্বাচনের দিনক্ষণ তো ঘোষণা হয়নি।’

বাংলাদেশের ক্রীড়া ফেডারেশনগুলোর নির্বাচনে সব সময়ই কলকাঠি নাড়েন জেলা ও বিভাগের কাউন্সিলররা। বাফুফের ১৪৩ ভোটারের মধ্যে তাদের সংখ্যাই বেশি (৭২ জন)। এরপর বেশি ভোটার ক্লাবের।

বাফুফের নির্বাচনে সব সময়ই চোখ থাকে বিপিএলের ক্লাবগুলোর ভোটারদের উপর। বিপিএলের ক্লাবগুলো থেকে কারা ভোটার হচ্ছেন তা জানতে আগ্রহী সব ফুটবলপ্রেমীই। জানা গেছে, বাফুফের আসন্ন নির্বাচনে ঢাকা আবাহনী থেকে ভোট দেবেন ক্লাবের পরিচালক কাজী এনাম আহমেদ, মোহামেডানের ভোটার ক্লাবের পরিচালক মো. মনজুর আলম। এছাড়া বসুন্ধরা কিংসের ভোটার ক্লাব সভাপতি ইমরুল হাসান, শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবের সাফওয়ান সোবহান তাসবিব, শখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের মাকসুদুর রহমান, সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবের ইঞ্জিনিয়ার নাসির উদ্দিন চৌধুরী, চট্টগ্রাম আবাহনীর তরফদার মো. রুহুল আমিন, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘের এজাজ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর, ব্রাদার্স ইউনিয়নের আমের খান, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্রের আরিফুল ইসলাম, রহমতগঞ্জের ইমতিয়াজ হামিদ সবুজ, বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাবের শেখ মোহাম্মদ মারুফ হাসান ও উত্তর বারিধারা ক্লাবের জাকির হোসেন বাবুল।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (1)
Himo ২৪ জুলাই, ২০২০, ৮:৪৭ এএম says : 0
Election should be outside people of football federation or club. Best army person.
Total Reply(0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন