শুক্রবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জামাদিউস সানি ১৪৪৩ হিজরী

সারা বাংলার খবর

নগরকান্দায় আ’লীগ ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সমর্থকদের সংঘর্ষ : পুলিশসহ আহত ১২

ফরিদপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ৩০ অক্টোবর, ২০২১, ৮:০১ পিএম

তালমার সংঘর্ষের স্থানে দাঙ্গার জনতা।


ফরিদপুর নগরকান্দা উপজেলায় ইউপি নির্বাচনে তালমা এলাকায়, আ'লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী রনজিৎ কুমার মন্ডলের সমর্থক ও স্বতন্ত্র প্রার্থী কামাল হোসেনের সমর্থকদের মধ্যে সংঘর্ষের খবর পাওয়া গেছে। শনিবার (৩০ অক্টোবর) বিকালে উপজেলার রসুলপুর এলাকায় এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এসময় তিনজন পুলিশসহ কমপক্ষে ৮ জন আহত হয়েছে। আহতদের তাৎক্ষণিক সকলের নাম-পরিচয় জানা সম্ভব হয়নি।

সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (নগরকান্দা সার্কেল) মো. সুমিনুর রহমান বলেন, সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে পুলিশের তিনজন সদস্য আহত হয়েছে। তিনি বলেন, পরিস্থিতি এখন স্বাভাবিক রয়েছে।

উল্লেখিত বিষয়,স্বতন্ত্র প্রার্থীর আহত সমর্থক মোঃ রেজাউল ইসলাম (৪০) ইনকিলাবকে জানান, আমি সহ চা্ন মিয়া (৫৫), হাফেজ মাতুব্বর (৩৮), রমজান মোল্যা (৬০),সাহিদ মাতুব্বর(৫৫), নুরু মাতুব্বর (৪০),অচিন মোল্যা (৪৫), শাহীন মোল্যা (৪০),নাহিদ(৩৭), ইট পাটকেল ও লাঠির আঘাতে রক্তাক্ত জখম হন।

অপরদিকে, নৌকার প্রার্থীর পক্ষেরও ৪/৫ জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে, এর মধ্যে হারুন (৫২) নামের একজনের ব্যক্তির পরিচয় পাওয়া যায়,অন্যদের নাম জানার চেষ্টা করলেও নামগুলো জানাতে সংবাদকর্মী দের কেউ সাহায্যে করেননি। তবে কোন পক্ষেরই কেউ গুরুতর আহত হয়নি।

অপরদিকে, গত ২৮ অক্টোবর, এই দুটি সমর্থদের মধ্যে, অপর একটি দাঙ্গায়,স্বতন্ত্র প্রার্থীর পক্ষের তিনজন আহত হয়,এরা হলেন আক্কাস,রইস,তৈয়াবুর।

এ ছাড়ারাও হামলাকারীরা বেপরোয়া হয়ে হামলা করলে পালানো নেতা/ কর্মীদের আশ্রিত বাড়িতে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ক্ষতিসাধন করে এবং স্বতন্ত্র প্রার্থীর নির্বাচনী অফিস ও ভাংচুর করে। ঐ ঘটনায় নগরকান্দায় থানায় একটি মামলা হয়েছে বলে জানা গেছে। এলাকার পরিবেশ এখন শান্ত আছে। পুলিশ নিচ্ছিদ্র নিরাপত্তার বলয় তৈরী রাখছেন, পরবর্তী কোন সহিংসতা যেন না ঘটে।

প্রসঙ্গত, নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একটি বিশ্বস্ত সূত্র বলছেন। আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী রঞ্জু এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী কামাল গ্রুপের মধ্যে সরাসরি কোন বিরোধ নাই। কিন্ত জামাল গং ও ফিরোজ খান গংদের মধ্যকার পুরাতন বিরোধ কে নির্বাচনী সহিংসতার মধ্যে ফেলে একটি সুবিধাবাদী কতিপয় মাতুব্বরের চক্র বড় দাঙ্গায় পরিণত করতে চায়।

ঐ পরিকল্পিত দাঙ্গায় যদি বড় ধরনের রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষ হয়, তা হলে বহু মানুষ হতাহতের সমূহ সম্ভাবনা আছে। এতে শত্রু পক্ষের দুই দিকে লাভ। একদিকে স্বতন্ত্র প্রার্থী তথা কামাল জামালদের গংদের নাম বড় মামলা হবে। এবং নেতা,কর্মী, সমর্থক পালিয়ে বেড়াবে। তাতে ফাঁকা মাঠে গোলও হবে, পুরাণ রাগের ঝাঁলও মিটবে।

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন