ঢাকা মঙ্গলবার, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৭ আশ্বিন ১৪২৭, ০৪ সফর ১৪৪২ হিজরী

সারা বাংলার খবর

‘প্রতিহিংসার বিষে খালেদা জিয়াকে জামিন দিচ্ছে না সরকার’

ময়মনসিংহে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান

ময়মনসিংহ ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ৪ জানুয়ারি, ২০২০, ৬:৪৩ পিএম

রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বিষে জামিন পাওয়ার যোগ্য হওয়া সত্বেও তাকে জামিন দিচ্ছে না, বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য বেগম সেলিমা রহমান। তিনি বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতার নীল নকসা বাস্তবায়নের জন্যই খালেদা জিয়াকে জেলে আটকে রেখেছে। খুব অসুস্থ্য থাকার পরও খালেদা জিয়াকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বিষে জামিন পাওয়ার যোগ্য হওয়া সত্বেও তাকে জামিন দিচ্ছে না। তিনি বলেন, সরকার আমাদেরকে মানববন্ধন, সভা-সমাবেশ করতে দেয়না। আমাদেরকে কথা বলতেও দেয়া হচ্ছে না। প্রতিবাদ করলে রাষ্ট্রদ্রোহী মামলা দিচ্ছে। এতে দেশের গণতন্ত্র মরবে না। বরং ফ্যাসিষ্ট সরকারেই পতন হবে। গণতন্ত্র পুনরুদ্ধারে রাজপথে থেকে ফ্যাসিষ্ট সরকারের পতন নিশ্চিত করতে হবে। সুস্থ্য অবস্থায় খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে। এজন্য খালেদা জিয়ার মুক্তির আন্দোলন সফল করতে সকলকে সংগঠিত থাকজতে হবে।

শনিবার দুপুরে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার ছনকান্দায় বিগত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ক্ষমতাসীন দলের সন্ত্রাসীদের হামলায় নিহত বিএনপি কর্মী আব্দুর রশিদের স্মরণসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

স্মরণ সভায় সভাপতিত্ব করেন ফুলবাড়িয়া উপজেলা বিএনপির সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার শামসুদ্দিন আহমেদ। এতে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স, স্বনির্ভর বিষয়ক সম্পাদক শিরিন সুলতানা, দক্ষিণ জেলা বিএনপির আহবায়ক ডা. মাহবুবুর রহমান লিটন, যুগ্ম আহবায়ক জাকির হোসেন বাবলু ও আলমগীর মাহমুদ। এ সময় বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ওয়ারেজ আলী মামুন, জেলা বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক ফকরুদ্দিন আহমদ বাচ্চু, ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের সাবেক যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আ: করিম সরকার, মরহুমের পুত্র আলম প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। সভা শেষে মরহুম আব্দুর রশিদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। এর আগে মরহুমের কবর জিয়াত করেন দলীয় নেতা-কর্মীরা।

সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স বলেন, বর্তমান সরকার মধ্যরাতের সরকার। এজন্যই তারা বিএনপি ও জনগণকে ভয় পায়। তারা দেশের রাজনীতিকে সংকুচিত করে রেখেছে। আজকে দেশে রাজনীতি বলে কিছু নেই। প্রশাসন বলে কিছু নেই। সরকার বলেও কিছু নেই। দেশকে আজ পুলিশী রাষ্ট্রে পরিণত করা হয়েছে।

 

 

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন