ঢাকা, মঙ্গলবার ১৬ জুলাই ২০১৯, ০১ শ্রাবণ ১৪২৬, ১২ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।

সারা বাংলার খবর

সিলেটে উন্নয়ন বিড়ম্বনা, জনদুর্ভোগ

সিলেট ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৮ মে, ২০১৯, ৫:৫৭ পিএম

সিলেট নগরীর অধিকাংশ সড়কজুড়ে চলছে খোঁড়াখুঁড়ি। কোথাও প্রশস্তকরণ, কোথাও ভূগর্ভস্থ বিদ্যুৎ লাইন স্থাপন, কোথাওবা চলছে ড্রেনেজ ব্যবস্থা সংস্কারের কাজ। পবিত্র রমজান এবং ঈদলগ্নে এই উন্নয়নযজ্ঞে হাঁপিয়ে উঠেছে নগরবাসী। কেননা খোঁড়াখুঁড়ি করে রাখা সড়কে প্রায়ই ঘটছে নানা দুর্ঘটনা। সারাদিনই লেগে থাকছে ভয়াবহ যানজট। সময় মতো পৌঁছা যাচ্ছে না গন্তব্যে। এমন উন্নয়ন বিড়ম্বনার দ্রুত পরিত্রাণ চান সিলেটবাসী। 

নগরবাসীর অনেকেই অভিযোগের সুরে জানান, নাগরিকদের প্রয়োজনে নগরীর উন্নয়ন কাজ হবে এটাই স্বাভাবিক। তবে সেই কাজের কারণে নগরবাসীকে যদি দীর্ঘ মেয়াদে দুর্ভোগ পোহাতে হয়, তা কোনোভাবেই কাম্য নয়।

এদিকে নগরবিদরা বলছেন, উন্নয়ন কাজে ধীরগতি আগামীতে নাগরিকদের বিড়ম্বনা আরো বাড়াবে। রমজান এবং ঈদেও কেনাকাটায় নগরমুখি এখন সব মানুষ। যে কারণে পরিবহণের চাপ বেশি। সড়কে কাজ চলায় যানজটের কবলে আটকা পড়তে হচ্ছে যাত্রীদের। আর সিলেট সিটি করপোরেশনের দায়িত্বশীলরা বলছেন, জনকল্যাণে উন্নয়ন কর্মকা- ত্বরান্বিত হয়েছে। দীর্ঘস্থায়ী সুফলের জন্য জনগণকে সাময়িক দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে।
সরেজমিন দেখা গেছে, নগরের অধিকাংশ সড়কেই চলছে উন্নয়ন কাজ। এর মধ্যে নগরের জিন্দাবাজার থেকে নয়াসড়ক, সিলেট সুনামগঞ্জ সড়কের মদিনা মার্কেট, পাঠানটুলা, আম্বরখানা-বিমানবন্দর সড়ক, চেšহাট্টা থেকে আম্বরখানা, মিরাবাজার থেকে শিবগঞ্জ, রেলগেইট, কদমতলি বাসস্ট্যান্ড এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় চলছে উন্নয়ন কাজ। রাস্তা প্রসস্তশরণ, ফুটপাত, ট্রেনেজসহ বিভিন্ন উন্নয়ন কাজের জন্য সড়কে যত্রতত্রভাবে ফেলে রাখা হয়েছে নির্মাণ সামগ্রী। ড্রেন নির্মাণের জন্য গর্ত করার পর মাটিগুলো উঁচু করে ফেলে রাখা হয়েছে। যে কারণে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে যানবাহন ও পথচারীদের।
জিন্দাবাজারের ব্যবসায়ী বদরুল আলম বলেন, কালভার্টের নির্মাণ কাজ শুরুর পর থেকে আমাদের ব্যবসা-বাণিজ্য নেই বললেই চলে। দ্রুতগতিতে কাজ শেষ করে এই ভোগান্তি থেকে আমাদের মুক্তি দেয়া হোক।

এ ব্যাপারে সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেন, ‘আমরা দ্রুত কাজ শেষ করার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। ৫ সদস্যেও একটি কমিটিও করা হয়েছে। এই কমিটি উন্নয়ন কাজের তদারকি করছে। ঈদে যাতে মানুষের দুর্ভোগে পড়তে না হয়, তার জন্য নগরের প্রধান সড়কগুলোর কাজ দ্রুত শেষ করার চেষ্টা চালানো হচ্ছে।’

 

Thank you for your decesion. Show Result
সর্বমোট মন্তব্য (0)

এ সংক্রান্ত আরও খবর

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ

মোবাইল অ্যাপস ডাউনলোড করুন